পাতা:মহাত্মা রাজা রামমোহন রায়ের জীবনচরিত.djvu/১০২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কলিকাতা বাস । እUፃ বর্তনের পর তিনি বিলক্ষণ উৎসাহের সহিত একেশ্বরবাদ প্রচারে প্রবৃত্ত হইলেন। হরকরা নামক সংবাদপত্রের আপিস-বাড়ীর দ্বিতীয়তল গৃহে ‘ইউনিটেরিয়ান সোসাইটি' (Unitarian Society) নামক এক সভা সংস্থাপন করিলেন । এই সভাতে ইউনিটেরিয়ান খ্ৰীষ্টিয়ানদিগের মতানুসারে ঈশ্বরোপাসনা হইত। রাজা রামমোহন রায় এই সভাতে র্তাহার পুত্ৰগণ, কয়েকজন দূরসম্পৰ্কীয় জ্ঞাতি, এবং তারাচাদ চক্রবর্তী ও চন্দ্রশেখর দেব এই দুই শিষ্য সমভিব্যাহারে গমন করিতেন। এক দিবস সভা ভঙ্গ হইলে তাহারা গৃহপ্রত্যাবর্তন করিতেছেন, এমন সময়ে তারাচাদ চক্রবর্তী ও চন্দ্রশেখর দেব বলিলেন যে, বিদেশীয়দিগের উপাসনাস্থলে আমাদের যাইবার প্রয়োজন কি? আমাদের নিজের একটি উপাসনা-গৃহ প্রতিষ্ঠা করা আবশ্যক। এই কথাটি রামমোহন রায়ের মনে লাগিল। তিনি তাহার বন্ধু দ্বারকানাথ ঠাকুর ও টাকি নিবাসী রায় কালীনাথ মুন্সির সহিত । পরামর্শ করিলেন। পরে এই বিষয় স্থির করিবার জন্য র্তাহার বাটতে এক সভা হইল। সভাতে শ্ৰীযুক্ত দ্বারকানাথ ঠাকুর, ঐযুক্ত রায় কালীনাথ মুন্সি, ঐযুক্ত প্রসন্নকুমার ঠাকুর এবং । হাবড় নিবাসী ত্রযুক্ত মথুরানাথ মল্লিকু বলিলেন যে, এই মহৎ উদ্বেগু সাধন জন্ত তাহারা যথাসাধ্য সাহায্য করিবেন। চন্দ্রশেখর দেবের প্রতি ভার দেওয়া হইল যে, তিনি সিমলায় শিবনারায়ণ সরকারের বাটীর দক্ষিণে এক খণ্ড ভূমির মূল্য স্থির করেন। কিন্তু উক্ত স্থান উদ্দেশু সাধনপক্ষে অনুকুল বলিয়া বোধ না হওয়াতে, ষোড়ার্সাকে, চিৎপুর রোডের উপর సి