পাতা:মহাত্মা রাজা রামমোহন রায়ের জীবনচরিত.djvu/১৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৮ মহাত্মা রাজ রামমোহন রায়ের জীবনচরিত। প্রতি পুনৰ্ব্বার বিমুখ হইলেন। কিন্তু আমাকে কিছু কিছু অর্থ সাহায্য প্রদত্ত হইত। আমার পিতার মৃত্যুর পর আমি অধি- ; কতর সাহসের সহিত পৌত্তলিকতার পক্ষ সমর্থনকারীদিগকে । আক্রমণ করিলাম। এই সময়ে ভারতবর্ষে মুদ্রাযন্ত্র সংস্থাপিত | হইয়াছিল। তামি উহার সাহায্য লইয়। তাহাদিগের ভ্ৰমাত্মক ! মত সকলের বিরুদ্ধে দেশীয় ও বিদেশীয় ভাষায় অনেক প্রকার পুস্তক ও পুস্তিক প্রচার করিলাম। ইহাতে লোকে আমার প্রক্টি এরূপ ক্রুদ্ধ হইয়া উঠিল যে, দুই তিন জন স্কটলণ্ডবাসী বন্ধু ব্যতীত আর সকলেই আমাকে পরিত্যাগ করিলেন। সেই বন্ধুগণের প্রতি ও র্তাহারা যে জাতির অন্তর্গত তাহাদিগের अडि ओबि बिनि কৃতজ্ঞ । “আমার সমস্ত তর্ক বিতর্কে আমি কখন হিন্দুধৰ্ম্মকে আক্রমণ করি নাই । উক্ত নামে যে বিকৃত ধৰ্ম্ম এক্ষণে প্রচলিত, তাহাই আমার আক্রমণের বিষয় ছিল।* আমি ইহাই প্রদর্শন করিতে চেষ্টা করিয়াছিলাম যে, ব্রাহ্মণদিগের পৌত্তলিকতা, তাহাদিগের পূর্বপুরুষদিগের আচরণের ও যে সকল শাস্ত্রকে তাহার শ্রদ্ধা করেন ও যদমুসারে তাহারা চলেন বলিয়া স্বীকার পান তাহার মতবিরুদ্ধ। আমার মতের প্রতি অত্যন্ত আক্রমণ ও বিরোধ সত্ত্বেও আমার জ্ঞাতিবর্গের ও অপরাপর লোকের মধ্যে কয়েক জন অত্যন্ত সন্ত্রান্ত ব্যক্তি আমার মত গ্রহণ করিতে 'चांद्रख् করিলেন। “এই সময়ে ইয়োরোপ দেখিতে আমার বলবতী ইচ্ছা জন্মিল। তত্ৰত আচার ব্যবহার, ধৰ্ম্ম ও রাজনৈতিক অবস্থাসম্বন্ধে