পাতা:মহাত্মা রাজা রামমোহন রায়ের জীবনচরিত.djvu/১৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পূৰ্ব্বপুরুষ, মাতা পিতা ও বাল্যকাল । ১১ প্তাহার প্রপিতামহের নাম কৃষ্ণচন্দ্র বন্ধ্যোপাধ্যায়। তিনি নবাবসরকারে কার্য্য করিয়া “রায়” উপাধি প্রাপ্ত হন। মুরশিদাবাদ জিলার অন্তঃপাতি শাকাস গ্রামে ইহার আদি নিবাস ছিল। ইনি তীক্ষবুদ্ধিসম্পন্ন লোক ছিলেন। কৃষ্ণচন্দ্রই শাকাস গ্রাম পরিত্যাগ পুৰ্ব্বক রাধানগরে বাস করেন। বাসস্থান পরিবর্তনের কারণ এইরূপ কথিত আছে—নবাব তাহাকে খানাকুল কৃষ্ণনগরের চৌধুরী মহাশয়দিগের জমিদারীর বন্দোবস্ত করিয়া দিবার জন্য তথায় প্রেরণ করেন। লোকে তাহাকে শিকদার বলিত। অদ্যাবধি তথায় শিকদারপুকুর নামে একটা পুষ্করিণী আছে। স্থান মনোনীত হওয়াতে “পরম বৈষ্ণব কৃষ্ণচন্দ্র এই স্থানে সুবিখ্যাত অভিরামগোস্বামীপ্রতিষ্ঠিত বিগ্রহ গোপীনাথের শ্ৰীপাঠ সন্নিকট রাধানগর নামক গ্রামে বাসস্থাপন করেন।” কৃষ্ণচন্দ্রের তিন পুত্র, জ্যেষ্ঠের নাম অমরচন্দ্র, মধ্যম হরিপ্রসাদ, কণিষ্ঠ ব্রজবিনোদ। ব্রজবিনোদ রায় সম্পত্তিশালী, দেবভক্ত এবং পরোপকারী ছিলেন । ব্রজবিনোদ নবাব সিরাজুদ্দৌলার অধীনে মুরশিদাবাদে কোন সন্ত্রান্ত পদে নিযুক্ত ছিলেন ; কিন্তু তাহার প্রতি কোন অন্তায় ব্যবহার হওয়াতে তিনি কৰ্ম্ম পরিত্যাগ করিয়া গৃহে আসিয়া অবশিষ্ট জীবন ক্ষেপণ করেন। রাজ রামমোহন রায়ের পিতৃকুল বৈষ্ণব এবং মাতামহকুল , শাক্ত মতাবলম্বী। এই বৈষ্ণব ও শাক্ত বংশের পরস্পর কুটুম্বিতী: , * नि७नांॐ मादश्व उाक्रनस्तन्त इठिक्कन शूलहरु निश्ब्रिॉइन त्र, চৈতন্তের শিষ্য নরোত্তমঠাকুর রামমেনে রয়ের পুর্বপুরুষ। আমরা অনু সন্ধানধারা জানিয়াছি যে, একথার কোন মূল নাই।