পাতা:মহাত্মা রাজা রামমোহন রায়ের জীবনচরিত.djvu/১৭১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১৬৬ মহাত্মা রাজা রামমোহন রায়ের জীবনচরিত । গ্রে একটি মোকদ্দমায় প্রচলিত উত্তরাধিকারিত্বের নিয়ম উল্লঙ্গন পূৰ্ব্বক এইরূপ নিম্পত্তি করেন যে, “পুত্র অথবা পৌত্রের মত গ্রহণ না করিয়া, কোন ব্যক্ত পৈত্রিক সম্পত্তি দান বিক্রয় করিতে পরিবেন না।” এই নিষ্পত্তিতে তৎকালীন হিন্দুগণ যারপরনাই বিরক্ত হইয়াছিলেন। রামমোহন রায় উহার বিরুদ্ধে আন্দো, লন উপস্থিত করেন। তিনি এ বিষয়ে ইংরেজী ভাষায় একা মুদীর্ঘ প্রবন্ধ পুস্তকারে প্রকাশ করিলেন। • শাস্ত্রানুসারে প্রত্যেক হিন্দুর পৈতৃক সম্পত্তির উপর কি প্রকার অধিকার উহাতে তিনি পরিষ্কাররূপে ব্যাখ্যা করিয়া প্রতিপন্ন করেন যে উক্ত নিম্পত্তিতে বঙ্গ দেশীয় হিন্দুসমাজের বিশেষ অনিষ্ট হইবে এবং তৎকালে হিন্দুদিগের সম্পত্তিগত যে সকল সত্ত্ব ছিল, এব: তদনুযায়ী যে সকল নিয়মপত্র হইয়াছিল,তাহ বিচলিত হইবে এতদ্ভিন্ন তিনি ইহাও বিশেষরূপে প্রদর্শন করিয়াছিলেন যে বৃটিশ, গবর্ণমেণ্ট এ সকল বিষয়ে দেশীয় ব্যবস্থা অতিক্রম করিলে দেশবাসীগণের প্রতি যারপর নাই অন্তায় করা হইবে। তিনি এ বিষয়ে তৎকালীন হরকরা পত্রে অনেকগুলি প্রেরিত পর প্রকাশ করিয়াছিলেন। রামমোহন রায়ের ইংরেজী গ্রন্থাবলী মধ্যে উত্তরাধিকায় সম্বন্ধীয় উক্ত প্রবন্ধ এবং প্রেরিত পত্রগুলি মুদ্রিত হইয় প্রকাশিত হইয়াছে { তিনি কেবল পুস্তক লিখি

  • Essay on the rights of Hindoos over ancestral propert. according to the Law of Bengal. Calcutta 1830.

ইংরেজী গ্রন্থাবলীর ৩৭১-৪২৭ পৃষ্ঠা দেখ ।