পাতা:মহাত্মা রাজা রামমোহন রায়ের জীবনচরিত.djvu/১৭৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১৬৮ মহাত্মা রাজা রামমোহন রায়ের জীবনচরিত। নিকট একখানি আবেদন পত্র প্রেরণ করিলেন ।* কিন্তু তারা গ্রাহ হইল না। এখানে অকৃতকাৰ্য্য হইয়া বিলাতে আবেদন করা হইল। দুর্ভাগ্যক্রমে সেখানেও তাহা গ্রাহ্য হইল না। এজন্য রামমোহন রায় অতিশয় দুঃখিত হইয়াছিলেন। কি স্বদেশে, কি ইংলণ্ডবাস কালে, উহার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করিতে তিনি কোথাও ক্ষান্ত হন নাই। আড্যাম সাহেব তাহার বক্তৃতায় বলিয়াছিলেন যে, “এই অন্যায় আইন ইংরেজ গবর্ণ মেন্টের প্রতি বঙ্গবাসীর বিরক্তির একটি প্রধান কারণ। রায় মোহন রায় যেমন র্তাহার স্বদেশীয়গণকে ভাল বাসিতেন সেইরূপ বৃটিশ গবর্ণমেণ্টেরও পক্ষপাতী ছিলেন। সুতরা স্বদেশবাসীগণের হিতের জন্ত ও গবর্ণমেণ্টের স্বনাম রক্ষার জন্ত ভারতবর্ষে ও ইংলওে উক্ত অন্তায় আইনের প্রতিবাদ করিত্বে তিনি কখনও ক্রট করেন নাই ।” রামমোহন রায় বিলাত গমন করিয়া সেখানে স্বদেশবাস গণের বৈষয়িক ও রাজনৈতিক উন্নতির জন্য যে সকল চেষ্ট করিয়াছিলেন আমরা যথাস্থানে তাহার উল্লেখ করিব। স্বদে’ে অবস্থান কালে তিনি যে সকল রাজনৈতিক বিষয়ে হস্তক্ষে করিয়াছিলেন, তাহার যতদূর জানা গিয়াছে এস্থলে কেব তাহাই বিবৃত হইল। বৈদেশিক রাজনীতির সহিত গাঢ় সহানুভূতি । রামমোহন রায়ের চিত্ত কেবল স্বদেশের রাজনৈতিক মঙ্গল

  • রামমোহন রায়ের ইংরেজী গ্রন্থাবলীর সহিত উক্ত আবেদন পত্র মুঞ্জি ও প্রকাশিত হইয়াছে। ৬৩৯-৬৪৪ পৃঃ দেখ।