পাতা:মহাত্মা রাজা রামমোহন রায়ের জীবনচরিত.djvu/১৭৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সামাজিক ও রাজনৈতিক আন্দোলন । ১৬৯ চিন্তাতেই বদ্ধ ছিল না। সমগ্র পৃথিবীর রাজনৈতিক উন্নতি বিষয়ে তাহার একান্ত সহানুভূতি ছিল। যত্বপূৰ্ব্বক ইয়োরোপীয় সংবাদ-পত্ৰ পাঠ করিয়া তিনি ফান্স প্রভৃতি দেশের রাজ নৈতিক অবস্থার বিষয় অবগত হইতেন। কোন স্থানে দ্যায় ও সত্যের জয় হইয়াছে শুনিলে তাহার হৃদয়ে আনন্দ ধরিত না । ১৮২১ খৃষ্টাব্দে স্পেন দেশে নিয়ম-তন্ত্র শাসন-প্রণালী সংস্থাপনের সংবাদ কলিকাতায় আসিলে, তিনি এতদূর আনন্দিত হইরাছিলেন যে, তজ্জন্ত কলিকাতার টাউনহলে নিজব্যয়ে একটি প্রকাশ্যভোজ (Public Dianer) দিয়াছিলেন । র্তাহার বন্ধু মাড্যান সাহেব বলিয়াছেন যে, পটুগাল, দেশে উক্তরূপ নিয়মতন্ত্র-শাসন-প্রণালী প্রবর্তিত হইয়াছে শুনিয়াও র্তাহার হৃদয় আনন্দে উচ্ছসিত হইয়াছিল। তিনি অত্যন্ত আগ্রহের সঠিত তুরস্ক ও গ্রীসের মধ্যে বিবাদের সংবাদ লইতেন ; যাকাতে গ্রীকের তুরস্কবাসীদিগের অধীনতা ও অত্যাচার হইতে মুক্ত হয়, ইহা তিনি একান্ত হৃদয়ে কামনা করিতেন। যখন নেপল্সবাসীগণ স্বাধীনতার জন্য যুদ্ধ করিতেছিলেন, তখন কলিকাতায় সংবাদ আসিল যে স্বাধীনতাপক্ষাবলম্বী পরাজিত হইতেছেন । রামমোহন রায়ের চিত্ত সে সংবাদ শুনিয়া মৃয়মান হইয়া পড়িল । মিঃ বকৃল্যাণ্ড নামক একজন ইংরেজের সহিত তাহার সে দিন সাক্ষাতের কথা ছিল। র্তাঙ্গকে লিখিয়া পাঠাইলেন, নেপলসের দুর্দশার কথা শুনিয়া মন বিষাদে পূর্ণ হইয়াছে,সে দিন আর দেখা করিবার সাধা নাই। ১৮৩০ খৃষ্টাব্দে ফরাসী বিপ্লবেও তিনি যারপয় নাই আলোদিত হইয়াছিলেন। ইংলণ্ডযাত্রা (