পাতা:মহাত্মা রাজা রামমোহন রায়ের জীবনচরিত.djvu/১৮৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১৮২ মহাত্মা রাজা রামমোহন রায়ের জীবনচরিত। ধৰ্ম্মসংস্কারক। ইয়োরোপের মধ্যকালের লোকদিগের অপেক্ষাও কুসংস্কারান্ধ ব্যক্তি সকলের মধ্যে থাকিয়াও তিনি নিজে স্বাধীন ভাবে চিন্তা করিতে শিখিয়াছেন। তিনি একজন সদ্বিদ্বান ব্যক্তি। তিনি কেবল ইংরেজী, আরবী, সংস্কৃত, বাঙ্গাল, হিন্দুস্থানী ভাষায় লিখিত সৰ্ব্বোৎকৃষ্ট পুস্তক সকলের সহিত সুপরিচিত এরূপ নহে ; তিনি আরবী ও ইংরেজীতে অলঙ্কার শাস্ত্রও পাঠ করিয়াছেন। লক্ এবং বেকনের লেখা, সকল সময়েই আবৃত্তি করিয়া থাকেন। * * * * আমি শুনিয়াছি যে, তাহার পরিবারেরা তাহাকে ত্যাগ করিয়াছেন ; তিনি তাহার জাতি হীরাইয়াছেন এবং অন্যান্ত সকল ধৰ্ম্মসংস্কারকের দ্যায় তিনি এক্ষণে লোকের উপহাসের পাত্র হইয়াছেন। * * * তিনি অত্যন্ত মুত্র + + + ইংলণ্ড দেখিতে ও আমাদের কোন একটী বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রবেশ করিতে র্তাহার অতিশয় ইচ্ছ।” ১৮২৬ খ্ৰীষ্টাব্দে বৃটশ্ব এও ফরেন ইউনিটেরিয়ান্‌ আসো. foilo (British and Foreign Unitarian Association) সাম্বৎসরিক সভায় আর্ণট সাহেব তাহার বক্তৃতায় রামমোহন রায়ের সম্বন্ধে বলেন ;—“র্তাহার (রামমোহন রায়ের ) উচ্চ ক্ষমতা সকলের বিষয় তাহার রচিত গ্রন্থের দ্বারা ইউরোপের লোক জানিতে পারিয়াছে ; কিন্তু যাহারা তাহার সহিত পরি চিত,যাহার। তাহার সহিত কথোপকথনের মুখ উপভোগ করি আছেন, তাহারাই ঠিক বুৰিতে পারেন যে, তিনি কি প্রকার চরিত্রের লোক। যদিও তাহার ক্ষমতার জন্ত পৃথিবীর সকল অংশের লোক র্তাহার প্রশংসা করিতেছে, তথাচ কেবল ক্ষমতা