পাতা:মহাত্মা রাজা রামমোহন রায়ের জীবনচরিত.djvu/২০৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


২০০ মহাত্মা রাজ রামমোহন রায়ের জীবনচরিত। খ্ৰীষ্টধৰ্ম্মই বাইবেলসঙ্গত ধৰ্ম্ম, ভারতবর্ষে ও ইংলঙে অনেক খ্ৰীষ্টিয়ান উক্ত রূপ একেশ্বরবাদের বিরোধী, তাহার খৃষ্টের সরল উপদেশের অপেক্ষ কতকগুলি অবোধ্য মতে অধিক শ্রদ্ধা প্রকাশ করেন, তিনি ভারতরর্ষে তাহার মত প্রচারে অধিক কৃতকাৰ্য্য হইতে পারেন নাই, রামমোহন রায় তাহার বক্তৃতায় এই সকল বিষয়ে কথা বলিলেন। পরিশেষে নিম্ন লিখিত কথা গুলি বলিয় তাহার বক্তৃতা শেষ করিলেন। *একদিকে বুদ্ধি, শাস্ত্র ও সহজ জ্ঞান ; অপর দিকে ধন, ক্ষমতা ও কুসংস্কার এই উভয়ের মধ্যে যুদ্ধ চলিতেছে। এই শেষ তিনটির সহিত পূৰ্ব্বোক্ত তিনটির বিরোধ। কিন্তু আমার দৃঢ় বিশ্বাস যে, শীঘ্রই হউক বা বিলম্বেই হউক, নিশ্চয়ই আপনাদের জয় হইবে। আমি অত্যন্ত শ্রান্ত হইয়া পড়িয়াছি বলিয়া আপনাদের প্রদত্ত সম্মানের জন্য আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করিয়া আমার বক্তব্য শেষ করিলাম। আমার জীবনের শেষ মুহূৰ্ত্ত পর্য্যন্ত আমি উহ। কখন বিস্কৃত হইব না।” উক্ত সভায় রেভারেও ফক্স সাহেব তাহার বক্তৃতায় বলিয়াছিলেন;–“সে দিবস রাজা আমাকে বলিলেন যে, তিনি ইংলণ্ডে আসিয়া গৃষ্টের একখানি ছবি দেখিয়াছেন। উহার বর্ণইয়োরোপীয় দিগের দ্যায়। চিত্রকর মনে করেন নাই যে, যিশু খ্ৰীষ্ট ইউরোপীয় ছিলেন না, পূৰ্ব্বমহাদেশবাসী ছিলেন। রাজার এই সমালোচনা ঠিক হইয়াছিল। সেইরূপ, যে সকল ধৰ্ম্মতত্ত্বজ্ঞ পণ্ডিতের খ্ৰীষ্টধৰ্ম্মকে নীরস বুদ্ধিগত ধৰ্ম্মরূপে চিত্রিত করিয়াছেন, তাহারাও উহা প্রকৃত ভাবে অঙ্কিত করিতে পারেন নাই। বাইবেল