পাতা:মহাত্মা রাজা রামমোহন রায়ের জীবনচরিত.djvu/২৩৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


২৩৪ মহাত্মা রাজা রামমোহন রায়ের জীবনচরিত । তাহার শেষ নিশ্বাস দর্শন করা ভিন্ন অন্য কোন কাৰ্য্য ছিল না, আমি কুমারী কিডেলের সন্তোষার্থে আমি আমার পোসাক ন৷ ছাড়িয়াই শয্যায় শয়ন করিলাম। রাত্ৰি সাৰ্দ্ধ দ্বিঘটিকার সময় হেয়ার সাহেব আমার ঘরে আসিলেন, আসিয়া বলিলেন সকলই শেষ হইয়া গিয়াছে। রামরর রাজার চিবুক ধরিয়া হাটু গাড়িয়া তাহার পাশ্বে বসিয়াছিলেন। কুমারী হেয়ার, বালক রাজারাম, কুমারী কিডেলু, খ্ৰীযুক্ত হেয়ার সাহেব, আমার মাতা, কুমারী কাসে, রামহরি এবং একজন কিম্বা দুইজন ভৃত্য সেখানে ছিল। রাত্রি দুইট বাজিয়া ২৫ মিনিট হইলে, রাজা রামমোহন রায়ের শেষ নিশ্বাস পতিত হইয়াছিল। রাজার অস্তিম সময়ে হেয়ার সাহেব ইচ্ছা করিলেন যে ব্রাহ্মণ রামরত্ব সেই সময়ে ব্রাহ্মণদিগের মধ্যে প্রচলিত কোন অনুষ্ঠান সম্পন্ন করিতে পারেন। রাময়ত্ব হিন্দুস্থানী ভাষায় কিছু প্রার্থনা করিলেন।• স্ত্রীলোকের গৃহ হইতে চলিয় গেলে পর আমরা রাজার দেন্থ মাদুরের উপরে সোজা করিয়া শয়ান করিলাম। তাছার হিঙ্গু ভূতাদিগের সহিত কথা কহিতে লাগিলাম। প্রায় ৩াe টা কিম্বা ৪টার সময় আমরা সকলেই সে গৃহ পরিত্যাগ করিলাম । পাশ্বের ঘরে কয়েক জন ভূত্য বসিয়া রহিল। আমি শয্যায় গমন করিলাম ; কিন্তু রাত্রের ঘটনায় এত কষ্ট হইয়াছিল যে ভাল ঘুম হইল না। • • কুমারী হেয়ার শয্যায় শয়ন করিয়া ছিলেন। • রাময়তন হিন্দুস্থানি ভাষায় প্রার্থনা করিয়া ছিলেন ইহা সম্ভব নৰে তিনি সংস্কৃত মন্ত্র পাঠ অথবা বাঙ্গালায় প্রার্থনা করিয়া থাকিবেন।