পাতা:মহাত্মা রাজা রামমোহন রায়ের জীবনচরিত.djvu/২৫৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আরও কয়েকট কথা । 3》 ‘ন যারপর নাই উদারভাবে তাল গ্রহণ কপিতেন । কালীন প্রথা অনুসারে ঠাঙ্গর বীরর চুল ছিল ; 'श्वक्षित्र अग्नि श्रडिीग्र शङ्ग कति छन : ‘छिनि ग्रान्त ন দর্পণের সম্মপে কেশবিন্যাসে অনেক সময় নষ্ট SDS DDu BBBBB BBu u uBB BBBB রিয়া বলিলেন “মহাশয় । “কত আর সুখে মুখ দেখিলে পাণ” এই গীতটি কি কেবল পরের জন্যই রচনা করিয়ালেন ?” রামমোহন রায় লজ্জিত হইয়া বলিলেন “বেরাদার । কি বলিয়াছ, ঠিক বলিয়াছ”। বালক বালিকাদিগকে তিনি বড় ভালবাসিতেন। অনেক ময়ে তাহাদিগকে লইয়া আমোদ করিতেন। একজন ভক্তিচাক্তন প্রাচীন ব্যক্তি • বলেন “যে তিনি বাল্যকালে মধ্যে ধ্যে বয়স্তদিগের সহিত রামমোহন রায়ের বাটীতে যাটতেন । রামমোহন রায় তাহাদিগকে দেখিয়া অতিশয় আলাদ প্রকাশ করিতেন । বালকের আমোদ করিলে বলিয়। তিনি বাটতে একটা দোলন করিয়া রাখিয়াছিলেন। বালকের দোলনায় দুলিত, তিনি স্বয়ং তাঙ্গাদিগকে দোলাইতেন ; কিয়ৎকাল এক্টরূপে দোল দিয়া বলিতেন “এখন আমার পাল” ; এই বলিয়। নিজে দোলনায় বসিতেন ; সকল বালকে মিলিয়া মন্ত উল্লাসে তাহাকে দোলাইত। প্রগাঢ় বিদ্যাবুদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে এইরূপ শিশুর স্তায় সরলতা কেমন সুন্দর । এক দিবস রামমোহন রায় বালকদিগের সঠিত এই রূপে षशक्षिं लिट्टना५ ?ाङ्कद्र ।