পাতা:মহাত্মা রাজা রামমোহন রায়ের জীবনচরিত.djvu/৫০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কলিকাতা বাস । 86t ধনীদিগের মধ্যে তো কোন প্রকার বিদ্যার চর্চা ছিল না। চলিত বাঙ্গালী ভাষায় ব্যাকরণ জানা দূরে থাকুক, কাহারও বর্ণাশুদ্ধি জ্ঞান ছিল না। বিষয়কৰ্ম্মের উপযোগী পত্র লেখা ও অঙ্ক জানা থাকিলেই তাহদের পক্ষে যথেষ্ট হইত। তাহাদের পক্ষে যিনি ইংরাজী অক্ষর ভাল করিয়া লিখিতে পারিতেন, তাহার বিদ্যার গরিম আর মনে ধারণ করিতে পারিতেন না। তখনকার বাঙ্গালা পুস্তকের মধ্যে চৈতন্যচরিতামৃত, কবিকঙ্কণের চওঁী, আর ভারতচন্দ্রের অন্নদামঙ্গল ও বিদ্যাসুন্দর প্রসিদ্ধ ; এ সকলই পদ্যের ; গদ্যের গ্রন্থ তখন একখানিও ছিল না। * বুলবুলি ও ঘুড়ীর খেল, কৃষ্ণযাত্র ও কবির লড়াই, বি, সেতার ও তবলাতেই তখনকার কলিকাতার হাদিগের আমোদ ছিল, এবং তাহারা দোলের আবির খেলার ষ্ঠায় নন্দোৎসবের গোলা হরিদ্রা লইয়া পথে ঘাটে দলে দলে মাতামাতি করিয়া ফিরিতেন ও দেবকীপ্রস্থতির প্রসাদ ঝালের লাডু, ভক্তিপূর্বক খাইতেন। তথাপি অনেক রক্ষা এই ছিল যে, তখন পানদোষ তাহার মধ্যে প্রবেশ করে নাই এবং ইউরোপ দেশের বিজাতীয় সভ্যতার কলঙ্ক তাহাতে লিপ্ত হয় নাই। তখন তাহারা বড় বড় পূজাতে ইংরাজদিগকে বাটতে নিমন্ত্ৰণ করিয়া খাওয়াইতেন বটে, কিন্তু আপনার সেই

  • বোধ হয় লেখক ভুলিয়া গিয়াছেন যে, রামরাম বস্তুর প্রতাপাদিত্য চরিত্র, ১৮৭১ ; লিপিমালা ১৮০২ ; রাজীবলোচনের ‘কৃষ্ণচন্দ্র চরিত' ১৮৩২ খ্ৰীষ্টাব্দে, কোর্ট উইলিয়ম কলেজের জন্ত মুদ্রিত ও প্রকাশিত হইয়াছিল। কিন্তু উক্ত পতক সকলের রচনা অতি কদৰ্য্য।