পাতা:মহাত্মা রাজা রামমোহন রায়ের জীবনচরিত.djvu/৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


২ মহাত্মা রাজা রামমোহন রায়ের জীবনচরিত। যে সময়ে ভারতের গৌরবরবি অস্তগত হইল, যে সময়ে যুধিঠিরের সিংহাসনে যবনসম্রাট অধিষ্ঠিত হইলেন, যে সময়ে যবনের প্রতাপে সমগ্র ভারত বিকম্পিত, তখনও বিদ্যাপতি, জয়দেব, চণ্ডীদাস, মুকুন্দরাম, ভারতচন্দ্র, তুলসিদাস প্রভৃতি কবিগণ, এবং নানক ও গুরুগোবিন্দ, দাদু ও কবির, চৈতন্যদেব ও নিত্যানন্দ প্রভৃতি ধৰ্ম্মপ্রচারক ও সমাজ-সংস্কারকগণ জন্মগ্রহণ করিয়াছিলেন। -আবার যখন মুসলমানের প্রতাপ-স্বৰ্য্য চিরদিনের জন্ত অস্তমিত হইয়া গেল, যখন ইংরেজের বিজয়-নিশান সুদূরপ্রসারিত ভারতক্ষেত্রে উড্ডীন হইতে লাগিল, যখন বৃটিস্সিংহের ভীষণ কবলে হিন্দু ও মুসলমানের প্রভাব পরাভব মানিল, সেই বৃটিসাধিকার কালেও ভারতমাতা পুরুষরত্নস্বরূপ পুত্ররত্নলাভে বঞ্চিত হন নাই। কিন্তু এই শেষোল্লিখিত মহাত্মাদিগের মধ্যে নিঃসংশয়ে শ্রেষ্ঠতম কে ? যে অসাধারণ শক্তিসম্পন্ন মহাপুরুষের নাম এই প্রবন্ধের শিরোভূষণ হইয়াছে, তিনি নিশ্চয়ই র্তাহাদিগের অগ্রণী। তিনি বৃটিদাধিকারকালে ভারতাকাশের উজ্জ্বলতম নক্ষত্র। রামমোহন রায়ের জন্মকালে স্বদেশ ও বিদেশের অবস্থা । * - একশতাব্দী পূৰ্ব্বে যখন পাশ্চাত্যজ্ঞানের বিমল রশ্মি অন্ধকারাচ্ছন্ন হিন্দুসমাজে প্রবেশাধিকার লাভ করে নাই, যখন একসীমা হইতে সীমান্তর পর্য্যন্ত ভারতভূমির সর্বত্র অশেষ অনিষ্টকর কুসংস্কার নিচয়ের একাধিপত্য লেশমাত্র বিচ