পাতা:মহারাষ্ট্র-নৃপেন্দ্রকুমার বসু.djvu/১৪৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ళ শিবাজীর রাজ্য শালম-প্রণালী ও খোজাৰন আইনকানুন প্রণয়ন ও সংশোধন করিতেন, ধৰ্ম্মশান্ত্রের ব্যাখ্যা করিতেন, জ্যোতিষ ও বিজ্ঞানের তত্ত্ব প্রচার করিতেন এবং আপলের বিচার করিতেন --- যাহাহউক, শিবাজীর অভিষেকের এক বৎসর পরে একট। বাজে সছিলায় মুঘললেনাপতি দিল্লীর খী শিবাজীর এলাকাভূক্ত কল্যাণ আক্রমণ করেন। এবারও শিবাজী জয়ী হইলেন। নর্ণদা পার হইয় তিনি গুজরাট-লীমানার প্রধান বন্দর ত্রেীচ আক্রমণ করিয়া উহার উপর চৌথ বসানু। উহার সৈষ্ঠের বুৰ্গনপুর হইতে মাহুর পর্যন্ত বিস্তৃত দেশ চরিা সমভূমি করিয়া ফেলে । রিয়ার দিকে ওয়েপঞ্জীনিকেতাবার জন্ত শিবাজী বরাবরই চেষ্টা করিয়া জানিতেছিলেন ; এবার बांशtऊ ८ण ¢कड़े शूई ब झ, उछ्छ उिनि नंiउांत। e কোলাপুরে দুইটি প্রকাও দুর্গ তৈয়ারী করাইয়া, সৈন্য দিয়৷ ভুঞ্জি করিলেন। ফরাসী বৰিকদিগের নিকট হইতে কয়েকটি কামানও কয় করিলেন। কিন্তু সাতুরায় সৈন্ত সন্নিবেশ-কালে তিনি হঠাৎ অসুস্থ হইয় পড়েন এবং তাহার শরীর চিরকালের জস্য ভাঙ্গিয়া যায়। তারপর ১৬৭৬ খৃষ্টাব্দের শেষভাগে তিন কর্ণাট-বিজয়ে বহির হইবেন স্থির করিলেন । তজ্জ্বল্প ৩১,০৯০ অশ্বারোহী ও ৪০,৯৯৯ পদাতিক সজ্জিত হইল । কর্ণাটের অধিকাংশ তখন বিঙ্গাপুরের অধীন এবং বিজাপুর মুঘলের অনুগত। সুতরাং এই দুই শক্তির মুখে পুরাপুরি