পাতা:মহারাষ্ট্র-নৃপেন্দ্রকুমার বসু.djvu/২৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মহারাষ্ট্র Ra কোনমতে টিকিয়ছিলেন। উহাদেরই এক বংশ দশম শতাব্দীর মধ্যভাগে নববলে বলীয়ান হইয়া, কল্যাণে রাজধানী স্থাপন করিলেন এবং স্বাধীনতা ঘোষণা করির রাজ্যবিস্তারের বিরাট আয়োজন ফাদিয়া বসিলেন। ইহাদের একদল গুজরাটে গিয়া চওড়া খংশীয় সামস্তসিংহকে পরাস্ত করিয়া, সেখানকার সিংহাসন অধিকার করিয়া লক্টলেন। চওড়াবংশীয় রাঙ্গায় অনুহিলপত্তন নামক স্থানে ঠাঁহাদের নূতন রাজধানী পত্তন করিয়াছিলেন। এইখানে চালুকা-নায়ক মূলরাজ রাজা হইয়া ( ৯৪৩ খৃঃ), সমগ্র গুজরাট ও রাজপুতানার দক্ষিপশ্চিমের খনিকটা ভূভাগের উপর প্রভুত্ব করিতে থাকেন। . . f ইহাঁর বংশধর ভীমদেবের প্লাঙ্গত্ব সময়ে গজনীর সুলতান মাহমুদ রাজপুতনার মরুভূমির মধ্য দিয়া অনুলিপবনে আসিয়া উপস্থিত হন। রাঙ্ক হঠং দাক্রান্ত হইয়া, দলবল লইয়া সোমনখের দিকে পলায়ন করিলেন। সেখানে সামন্তরাঞ্জাদের ভুটাইয়া লইয়া, মুলতান মাহমুদকে সমুচিত শিক্ষা দিবার গুপ্ত প্রস্তুত হইয়া রহিলেন। তারপর সুলতান মাহমুদ সেস্থানে পৌঁছয়, হিন্দুদের সহিত তিন দিন রিয়া প্রাণপণে যুদ্ধ করিলেন। সোমনাথের পুরোহিতগণ পর্যন্ত যুদ্ধে যোগ দিলেন; তাহদের পত্নীরাও অন্দর-মহলের অর্গল ভাঙ্গিয়া মৃত্যুমুখর মুক্ত রণাঙ্গণে আসিয়া স্বামপুত্রদের উৎসাহিত করিয়াছিলেন। কিন্তু অবশেষে হিন্দুর হটিয়া গেলেন। মুলতান কয়েকদিন ধরিয়া সেমিনাথের