পাতা:মহারাষ্ট্র-নৃপেন্দ্রকুমার বসু.djvu/৩৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


২৯ মুসলমান স্বাস্থলে যাদব রাজবংশ রাষ্ট্রকূটদের করা ছিলেন; পরে দ্বাদশ শতাব্দীর মধ্যভাগ হইতে ইহান্ধের ভিতর সবচেন্সার সঞ্চার হয়-দক্ষিপত্তে এক নুন স্বাধীন রাজ্য-গঠনে ইহার কম্বুিমালাবাক্যে উদ্যোগী হন। ইহাতে দেব-গিরির যাদবরাঞ্জের স্বার্থে-আহ্মাত লাগিল। রাজা ভিয়ম প্রকাণ্ড এক সৈন্যবাহিনী লইয়া হ্যশালারাজ দ্বিতীয় বীর বল্লালকে আক্রমণ করিলেন । কিন্তু ভাবান হয়শালদের সন্থায় ; প্রাণপণ যুদ্ধ করিয়াও যাদবরাজ যুদ্ধে জয়লাভ করিান্ত পারলেন ন-তিনি রণক্ষেত্রে অন্ত্র হাতে লই৷ চিরনিদ্রায় শয়ন করিলেন। হুঙ্কুশালা-রাঙ্ক আপনাকে স্বাধীন সম্রাট বলিয়া মােক্ষা করিলেন। হাশলারে তীিয় সম্রাট, বিষ্ণুদ্ধনের রাজত্বকালে উয়ার রাজ্যসীমার মুখে দ্বৈতাদ্বৈতবাদী কৈ মারা রাষ্ট্ৰ আতৃিপ্ত হন। বিষ্ণুবৰ্দ্ধন ভাষার শিষ্যত্ব গ্রহণ করিয়া, রামানুজের ধৰ্ম্মমত প্রচারে যথেষ্ট সহায়তা কৃষ্ট্রিয়ছিলেন: ধারা কিছুকাল চুপ করিয় রছিলেন। তারপর ডিমের পৌত্র সিংহৰ হয়শালদের উল্লর প্রতিশোধ লইতে উঠিয়া পড়িয়া লাগিলেন। এই যদুবংশীয় বীর যুবকের অপূর্ব রকৌশলের নিকট হয়শালাগণ পাল পাল রব ছাড়িতে লাগিল। সিংস্থান যুদ্ধ ও জয় করিতে করিতে হয়শালাদের সমস্ত অধিকার ভেদ করিয়া, একেবারে চোল রাজাদের রাজ্যসীমা কাবেরী নদীর তীর পর্যন্ত উপস্থিত হইলেন। দক্ষিণাঙ্গ বিজয় সমাপ্ত করিয়া, সিংস্থান আধুনিক বেরারের অধিকাংশ ও মধ্যপ্রদেশের খানিকট জয়