পাতা:মহারাষ্ট্র-নৃপেন্দ্রকুমার বসু.djvu/৪৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


థ్రి বছমানী ক্ষীৰাজ্য বিভাগে উচ্চ পদসমূহে নিযুক্ত হইয়াছিলেন। অধীন দেশমুখগণ অতি সামান্য মাল্গুজারী প্রাদেশিক মুসলমান শাসনকৰ্ত্তাকে পাঠাইয়া দিয়াই নিশ্চিন্তু হইতেন ; তাহদের অভ্যিন্তরীণ ব্যাপারে ৰুচিৎ হস্তক্ষেপ করা হইত। কিন্তু সাতপুর ও পশ্চিমঘাটের দুর্গম স্থানসমূহেরঞ্চার বা দেশমুখগণ এই দেড়শত বৎসরের মধ্যে মুসলমান অধীনতার কোন ধার ধারেন নাই। আবার সুবিধা ও হযোগ পাইলে, দেশমুখ্যাণ খাজনা পাঠানো বন্ধ করিয়া ও বিদ্রোহাচরণ করিয়, কেন্দ্রীয় সরকারকে ব্যক্তিব্যস্ত করিয়া তুলিতেন। দ্বিতীয় বার্মানী-সম্রাট, মোহাম্মদ শাহের রাজী-কালে এইরূপ একটা বিদ্রোহ একটু ঘোরাল রকমের হইয়া উঠিয়ছিল। মােহাম্মদ শাহ রুতা স্কি উল্লেঅভিপ্রাপশাল লি" নগর নামক হিন্দু রাজ্যের বিরুদ্ধে এক অভিধান ধরিয়াছিলেন। সেই সুযোগে গোবিন্দ দেও নামক যাব বংশীয় এক সর্দায়— যিনি দেবগিরিরপশ্চিমে সামান্ত একটু যায়গায় দেশমুখ হইয়া কোন প্রথমে টিকির ছিলেন, তিনি প্রবল হইয়া, দেবগিরির (দৌলতাবাদের ) শাসনকৰ্ত্তা, বহু রাম থাকে স্থাত করিয়া কেলিনে। উহার বালানার রাজার নিকট হইতে অর্থ ও সৈন্যসাহায্য পাইয়া, অনুপস্থিত মুলতানের অধীনতা অস্বীকার করিয়া, তাহার রাজধানী হাসানাবাদ অধিকার করিতে চলিলেন । এই খবর পাইয়া, মোহাম্মদ শাহর বিশ্বাসম্ভাঞ্জন কৰ্ম্মচারীর রাজধানী ও তারায় চতুষ্পার্শ্ব হইতে যথাসাধ্য সৈন্য সংগ্ৰহ করিয়া ইহাদিগকে স্বাধা দিতে অগ্রসর হইলেন।