পাতা:মানিক গ্রন্থাবলী (প্রথম খণ্ড).pdf/১৬০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


b6Vo . কি যেন বুঝিবার চেষ্টা করিতে করিতে চিন্তিতভাবে সরাসী ধীরে ধীরে মাথা নাড়ে, রাজকুমারের চোখে মানে আবিষ্কার করিতে চায় । ফটোর কথা মিছে। কি যেন মতলব আছে তোমার। আষায় বলে রাজু। ওদের সকলকে একত্র করে দেখতে চাই। কেন ? একটা ব্যাপার বুঝতে চাই। তুমি বুঝবে না, সরসী । বুঝবে না ? তোমায় আমি সকলের চেয়ে ভাল বুঝি, তা জানো ? রাজকুমার একটু হাসিল। হাসিটা সরসীর পছন্দ হইতেছে না টের পাইয়া সঙ্গে সঙ্গে আবার গম্ভীর হইয়া গেল। জানতাম না, কিন্তু মেনে নিচ্ছি। তবে এটা ঠিক আমার বোঝার কথা নয় । এ অন্য ব্যাপার । রাজেনবাবুকে ভাল বুঝলেও তার নতুন মেটরিয়াল স্পিরিচুয়ালিজমের থিয়োরী কি বুঝতে পারবে ভরসা করা ? থিয়োরী না বুঝতে পারি, থিয়োরীটা কোন বিষয়ে সেটুকু বুঝতে পারব বৈকি । Vock Catta | CaC:Citg CMC&3 sigas Car arg গড়নের সম্পর্কটা বুঝবার চেষ্টা করছি। ও, তাই বলে । অন্ধকারে হেঁচট খাইতে খাইতে সরসী যেন হঠাৎ আলো দেখিতে পাইয়াছে। চোখে তার উত্তেজনা দেখা দেয়, মুখ উজ্জল হইয়া উঠে। রাজকুমার বলিতে থাকে, আমার মন্তে দেহের গড়নের সঙ্গে মেয়েদের মনের ঘনিষ্ঠ সম্বন্ধ আছে সরসী । সুস্থ স্বাভাবিক দেহের কথাই বলছি। যে আবেষ্টনীতেই একটি মেয়ে বড় হোক, তার দেহের গড়নের জন্য মনের কতগুলি বৈশিষ্ট) থাকবেই। তোমার মানসিক ধৰ্ম্মের কয়েকটা বিশেষ রূপ আছে, তুমি যদি জন্মের পরদিন থেকে অন্য একটি পরিবারে মানুষ হতে তবু এই বৈশিষ্ট্য বজায় থাকত। যেমন ধরে, তোমার সাহস । তোমার দেহের গড়ন না বদলিয়ে কোন প্রভাব তোমার সাহস নষ্ট করতে পারত না। প্ৰকাশ ১া হয়তো অন্তরকমের হত । অন্য বাড়ীতে অন্য অবস্থায় মানুষ হল তুমি হয়তো পথকে ভয় করতে, পুরুষকে ভয় করতে, বেলগাছকে ভয় করতে, মার খেয়ে কঁদিতে ভয় করতে, তৰু কতগুলি দিকে সাহস তোমার থাকতই । অসুখ বিমুখ বিপদ আপদে DB LL DDLB gE DBD EL D DBDS BBDB শুধু শাখা পরে তুমিই হয়তো হাসিমুখে বড়ৰাবুর দশহাজার টাকার গয়না পরা বৌয়ের সঙ্গে গল্প করতে, তুমিই হয়তো - বুঝেছি, বুঝেছি। আর শুনতে চাই না। রাজু থামে। তুমি সত্যি বাচালে আমায়। তোমার থিয়োরী না পাগলামি সে তুমিই জানো, ক'দিন থেকে তোমার মাথা খারাপ হয়ে মানিক-গ্ৰন্থাবলী যায়নি এটুকু যে বুঝতে পারছি তাই আমার ঢের । এইজন্য তুমি অমন করে তাকাচ্ছিলে আমাদের দিকে, ট্রামে বাসে আদির পাঞ্জাবী-পরা ছোড়াগুলোও যেমনভাবে তাকাতে পারে না ? কি আশ্চৰ্য্য মানুষ তুমি রাজু। রাজকুমারকে সরাসী চা করিয়া দিল, তিনরকম খাবার দিল । কথা বলিতে লাগিল অনর্গল । তার হাসি কথা চলাফেরা সব যেন হঠাৎ হাল্কা হইয়া গিয়াছে। কথা বলিতে বলিতে সরসী হঠাৎ জিজ্ঞাসা করিল, আচ্ছা, তোমার ও থিয়োরী কি শুধু মেয়েদের সম্বন্ধে খাটো ? ছেলেদের বেলা খাটে না ? শুধু মেয়েদের নিয়ে পরীক্ষা করার তোমার অত আগ্রহ কেন শুনি ? চায়ের কাপে চুমুক দিয়া রাজকুমার বলিল, ছেলেদের বেলাও খাটে। নিয়ম একই। তবে পুরুষের দেহের সঙ্গে মনের সম্পর্ক অতটা ঘনিষ্ঠ নয়। দেহের গড়ন অনুসারে মনের যে বৈশিষ্ট্য থাকা উচিত সেটা একেবারে চাপা পড়ে যেতে পারে, থেকেও না থাকার সামিল হয়ে যায়। মেয়েদের ব্যাপার অন্যরকম । তারা দেহসর্বস্ব বলে ? না, তাদের দেহ অন্যরকম বলে। দেহের অনুভূতি অন্য রকম বলে। দেহের উপযোগিতা অন্যরকম বলে। আরও অনেক কিছু আছে। বিদায় দেওয়ার সময় সরসী বলিল, কাল তোমার লিষ্টের সকলকে আসতে বলব, তুমি কিন্তু ওদের জানিও না। সখটা তোমার। গ্রপ ফটো তোলার সখ আমার, তোমায় দিয়ে আমি ফটো তোলাচ্ছি। বুঝতে পারছি ? পরদিন কালীকে সঙ্গে করিয়া রাজকুমার সরসীর বাড়ী গেল। তিনটি মেয়ে আসিতে পারে নাই। তবু চোব্দটি মেয়ে আসিয়াছে, কালী আর সরাসীকে ধরিলে ষোল জন । এতগুলি মেয়েকে একসঙ্গে পরীক্ষা করার সুযোগ পাইয়াও রাজকুমার খুশী হইতে পারিল না। এতগুলি দেহ আর মনের বৈশিষ্ট্য মিলাইয়া দেখা রাজকুমারের পক্ষেও সম্ভব छ्व् िना ।। ७भू ९l বলিয়াই সময় কাটিয়া গেল। জীবনে রাজকুমারের অনেকবার অনেকরকম বোক আসিয়াছে। এটা অবশ্য রাজকুমারের একচেটিয়া নয়, নেহাৎ DBBDLB DD BDBBDD BDD BBLS BBDBDB DDD ঝোকের মাথায় কখনো কোন কাজ করে না, ভাল কাজও নয়। দুঃখ আর অশান্তি দূর করিয়া পৃথিবীর সমস্ত মানুষকে সুখী করার বোঁকও যদি এ সমস্ত মানুষের চাপে, যতক্ষণ ঝোক থাকিবে কিছুই তারা করিবে না। ঝিমাইয়া পড়া পৰ্যন্ত মনে মনে শুধু বিবেচনা করিয়া চলিৰে কাজটা উচিত