পাতা:মানিক গ্রন্থাবলী (প্রথম খণ্ড).pdf/১৭১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চ তুঙ্কো ণ ধরব। শীগগির ধরব । দু’চার দিনের মধ্যে। অতিরিক্ত আগ্রহের সঙ্গে রাজকুমারের কথা বলার ধরণে সরসী একটু আশ্চৰ্য্য হইয়া যায়। সে যেন সরসীর কাছে প্ৰতিজ্ঞা করিতেছে, দেহকে আর অবহেলা করিবে না, অবিলম্বে ব্যায়াম আরম্ভ কৱিবে । অপরাধের বিলম্বিত প্ৰায়শ্চিত্ত করার মত। রাজকুমারের খাওয়া শেষ হওয়া পৰ্য্যন্ত সরাসী আর কথা বলে না, নীরবে তাকে দেখিয়া যায়। সেটা বিস্ময়কর ঠেকে রাজকুমারের কাছে। এবার বিদায় নেওয়া যাক । (Kiri সেটা কি উচিত ববে ? রাত কম হয়নি। তুমি আমাকে উচিত অনুচিত শেখাতে এসো না। নিজেও সরসী রসে । বসার পর একসঙ্গে বেশীক্ষণ রাজকুমারের মুখখান দেখিতে না পারায় এদিক ওদিক চাহিতে চাহিতে বার বার তার মুখের দিকে তাকায়। রাজকুমার নীরবে প্ৰত্যাশা করিয়া থাকে । সরসীর কিছু বলিবার আছে অনেক আগেই সে তা অনুমান করিয়াছিল। তার কাছে কিছু আশা করিয়া সরসী সুযোগ পাইয়া এত রাত্রে তাকে খালি বাড়ীতে ডাকিয়া আনে নাই, সরসীর কাছে এসব হঠাৎ পাওয়া সুযোগ সুবিধার কোন মানে নাই। সেরকম ইচ্ছা! থাকিলে কবে সকলে বিয়ে বাড়ীতে নিমন্ত্রণ রাখিতে গেলে বাড়ী ফাঁকা হইবে সে ভরসায় বসিয়া না থাকিয়া রাজকুমারকে BD DDB DD gB BBB DDD DD DBB BDBBDB খুব সম্ভব তাকে কিছু বলিবে সরসী এবং যতক্ষণ মুখ ফুটিয়া না বলিবে, কি যে সে বলিতে চায় কেউ কল্পনাও করিতে পরিবে না । সরসীর প্রকৃতি আসলে খুব সহজ ও সরল। দরকারী নিদোষ মিথ্যা সে অনর্গল বলিতে পারে, আজি সন্ধ্যায়ও অনায়াসে লাগসই কৈফিয়ৎ রচনা করিয়া নিজেকে সাক্ষী দাড় করাইয়া রুক্মিণীর কাছে তার লজ্জা বাচাইয়াছিল। বুদ্ধি তার ধারালো, মানুষের কাছে কাজ আদায় করার কোন কৌশল বোধ হয় তার অজানা নাই, সস্তা আবেগ তার কাছে 에t F11 কাল থেকে তোমার কথাই ভাবছি। রাজুদা। 6न्म ? তুমি যেন কেমন হয়ে যােচ্ছ দিনকে দিন। কেমন হয়ে যাচ্ছি ? কি রকম অস্থির দিশেহারা হয়ে পড়ছ। বেঁচে থাকতেই তোমার যেন ভাল লাগছে না, সব সময় একটা কষ্ট ভোগ করছি। অনেকদিন থেকেই তোমার এ ভাবটা লক্ষ্য করছি। কি হয়েছে তোমার ? ब्रांखङ्गमांद्र नैौद्मद भांष नांख्रिण । সরসী ভ্ৰ কুচকাইয়া একটু ভাবিল।--কি হয়েছে বুঝতে পারা আশ্চৰ্য্য নয়। কিন্তু কিছু যে তোমার হয়েছে তাও কি বুঝতে পার না ? অসুখ হলে তো সব সময় জানা যায় না কি অসুখ হয়েছে, শরীরটা শুধু খারাপ লাগে। নিজের ভেতরে সেই রকম কিছু বোধ করা না ? অমুখের কথা বলছি না। মনে তোমার কোন রকম অস্বন্তি আছে, টের পাও না ? এসব কথা জিজ্ঞাসা করছি কেন সরসী ? বললাম না তোমার জন্য আমার ভাবনা হচ্ছে ? রিণির Kos(S MA Gs তাই বল । তুমি যা ভাবছি, তা নয়। রিণির কাছে সব শুনে আমার ভাবনা হয় নি, তার অনেক আগে থেকে তোমার সাধারণ চালচলন কথাবাৰ্ত্তার ধরণ দেখেই ভাবনা হয়েছে। তৰে রিণির ব্যাপারটা না জানলে আমি হয়তো চুপ করে থাকতাম। মানুষের কত কি হয়, বিশেষ করে তোমার মত যারা নিজের মনের মধ্যেই বেশী করে বাঁচে। তোমার ভেতরে কোন একটা গুরুতর পরিবর্তন ঘটছে, আস্তে আস্তে আবার সামঞ্জস্য হয়ে যাবে মনে করেছিলাম। একবার ভেবেছিলাম, লভে পড়েছি বুঝি, ছেলেখেলা নয়, আসল লভ ।। তারপর দেখলাম, সে সব কিছু নয়। কি করে জানলে সে সব কিছু নয় ? সে রোগের সিমটম আলাদা, আমরা চিনতে পারি। একটা মেয়েকে ভালবাসার মানে জানো ? সকলকে ভালবাসা, জীবনকে ভালবাসা, বেঁচে থাকতেই মজা লাগা। তুমি কাউকে করছ, কি করলে একটু স্বস্তি পাবে। সর্বস্ব হারিয়ে গেলে মানুষ যেমন পাগলের মত খুজে খুঁজে বেড়ায়, তুমিও ঠিক তেমনি ভাবে কি যেন খুঁজে বেড়াচ্ছি। থিসোরী ? তুমি পাগল রাজুদা। দেহের গড়নের সঙ্গে মানুষের প্রকৃতির সম্পর্ক কি তাই টেষ্ট করার জন্য কেউ এভাবে ব্যাকুল হয় ? তোমার আরও সিরিয়াস কিছু হয়েছে, এ শুধু তার একটা লক্ষণ। আমার কান্না পাচ্ছে বুঝতে পারছি ? সেটা সহজেই বুঝা যাইতেছিল। গলা ভারি হইয়া চোখ জলে ভরিয়া আসিয়াছে ৷ রাজকুমার তাড়াতাড়ি বলিল, কেঁদো না। সরসী । কান্না আমি সইতে পারি না । कांब्रा cश्रीनशे यांवि कॅलेि ना। कि ? তাই তো তোমায় ভালবাসি। ভালবাসো না, ছাই। পছন্দ কর । ভালবাসলে তো বেঁচে যেত । রাজকুমার করুণভাবে একটু হাসিল। সরাসীকে সে পছন্দ করে, স্নেহ করে, একটু ভয়ও করে। নিজের সম্বন্ধে এই স্পষ্ট ও সহজ কথাগুলি সরসী ছাড়া কারও কাছে সে শুনিতে পাইত না। অনেক দিন হইতেই সরাসী জানে তার ভিতরে কিছু একটা গোলমাল চলিতেছে।