পাতা:মানিক গ্রন্থাবলী (প্রথম খণ্ড).pdf/৭৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ਜ ਕੀ $(ტ -পরশু পেয়েছি যে চিঠি। লিখেছে বটে ভালই আছেএমনি দশা হয়েছে বাবা আমার, সব ভুলে যাই । কখন কোথায় কি রাখি। আর খুজে পাইনে, খুজে খুঁজে মরি गांवां बांछिड । বিধানবাবুর বিয়ে দেবেন না মা ?--মোহিনী এক সময় জিজ্ঞাসা করে। বকুল বুঝি চিঠি লিখিয়াছে তাগিদ দিতে। এই কথা বলিতেই হয়ত আসিয়াছে মোহিনী । KL DDYSBD SD SBBDB BK DLBD LBDDBD K বাবা ? বলে মাইনে বাড়কে। ছেলের মত নেই, বিয়ে দেব কারি ? এ বাড়িতে আসিয়া বিবাহের জন্য ছেলেকে শুষ্ঠামা যে পীড়াপীড়ি করিয়াছে তা নয়, ভয়ে সে চুপ করিয়া আছে, ধরিয়া লইয়াছে বিবাহ বিধান এ ন করিবে না । এর মধ্যে শামুকে বিধান কি আর ভুলিতে পারিয়াছে ? যে মায়াজাল ছেলের চারিদিকে কুহকী মেয়েটা বিস্তার করিয়াছিল। কয়েক মাসে তাহা ছিন্ন হইবার নয়। শামুল অজস্ৰ হাসি আজও শ্যামার কানে লাগিয়া আছে। এখন ছেলেকে বিবাহের কথা বলিতে গিয়া কি হিতে বিপরীত হইবে ? যে রহস্যময় প্ৰকৃতি তাহার পাগল ছেলের, কিছুদিন এখন চুপচাপ থাকাই ভাল। মোহিনী বলে, বিধানবাদূর অমত হবে না। মা, আপনি মেয়ে দেখুন। মোহিনীর বলার ভঙ্গিতে শ্যামা অবাক হইয়া যায়। এত জোর গলায় মোহিনী কি করিয়া ঘোষণা করিতেছে বিধানের অমত হইবে না ? বিধানের মন সে জানিল কিসে? তারপর মোহিনী কথাটা পরিষ্কার করিয়া দেয়। বলে যে ক'দিন আগে বিধান গিয়াছিল। তাহার কাছে, বিবাহেব ইচ্ছা জানাইয়া আসিয়াছে। যেচে বিয়ে করতে চান। শুনে প্রথমটা অবাক হয়ে গিয়েছিলাম মা, তারপর ভেবে দেখলাম কি জানেনআপনার শরীর ভাল নয় কাজকর্ম করতে কষ্ট হয় আপনার । ভেবে চিন্তে তাই সম্মত হয়েছেন। ওসব কিছু বললেন না অবিশ্যি, বলবার মানুষ তো নন শু্যামা জানে না ! পড়া ছাড়িয়া বিধান একদিন হঠাৎ চাকুরি গ্ৰহণ করিয়াছিল, আজ বিবাহে মত দিয়াছে । সেদিন অভাবে অনটনে শ্যামা পাগল হইতে বসিয়াছিল, আজি সংসারের কাজ করিতে তাহার কষ্ট হইতেছে। সেবার বিধান ত্যাগ করিয়াছিল বড় হওয়ার কামনা, এবার ত্যাগ করিয়াছে মত। শুধু মত হয়ত নয়। মত আর শামুত্র স্মৃতি হয়ত আজও একাকার হইয়া আছে ছেলের মনে । তা হোক, ছেলেরা এমনি ভাবেই বিবাহে মত দিয়া থাকে, মায়ের জন্য । নহিলে স্বপন দেখিবার বয়সে কেহ কি সাধ করিয়া বিবাহের ফঁাদে পড়িতে চায়। তারপর সব ঠিক হইয়া যায়। বৌ এর দিকে টান পড়িলে তখন আৱ মনেও থাকে না কিসের উপলক্ষে বৌ আসিয়াছে, কার জন্য। δφ চোখের জলের মধ্যে শ্যামা হাসে। খুজিয়া পাতিয়া ছেলের জন্য বৌ সে আনিবে পরীর মত রূপসী, মার জন্য বিবাহ করিতে হইয়াছিল বলিয়া দু’দিন পরে আর আপশোষ থাকিবে না ছেলের-মনে থাকিবে না শামুকে । শ্যামার মনে আবার উৎসাহ ভরিয়া আসিল । জীবনে কাজ তো এখনো তার কম নয়। আনন্দ উৎসবের পথ তে খোলা কম নয়! এত সে শান্ত হইয়া গিয়াছিল কেন ? কত বড় সংসার গড়িয়া উঠিবে তাহার। এখনি হইয়াছে কি ! বিধানের বৌ আসিবে, মনির বৌ আসিবে, ফণীর বৌ আসিবে,- যে ঘরে ওদের সে প্রসব করিয়াছিল সেই ঘরে এক একটি শুভদিনে আসিতে থাকিবে নাতিনাতনির দল। দোতলায় সে আরও ঘর তুলিবে, পিছন দিকের উঠানে দালান তুলিয়া আরও বড় করিবে বাড়ি । অত বড় বাড়ি তাহার ভরিয়া যাইবে নবীন নরনারীতে-ও -বাড়ি ৭ নকুড় বাবুর শাশুড়ির মত মাথায় শনের নুডি ঝালাইয়া কুজে হইয়া সে দাড়াইয়া থাকিবে জীবনের সেই বিচিত্ৰ উজ্জল আবতের মাঝখানে । সবই তো এখনো তাহার বাকি ? কেবল একটা দুঃখ তাছাকে আজীবন দহন করিবে । তার অন্ধ মেয়েটা। ওর জন্য অনেক চোখের জল ফেলিতে হইবে তাহাকে ! শ্যামা মেয়ে খুজিতে লাগিল। সুন্দরী, সদ্বংশজাতা, স্বাস্থ্যবতী, গৃহক মনিপুণা, কিছু কিছু গানবাজনা লেখাপড সেলাইএর কাজ জান', চোদ্দ পােনর বছর বয়সের একটি মেয়ে। খানিকটা শামুর মত, খানিকটা শ্যামার ভাড়াটে সেই কনকের মত আর খানিকটা শ্যামার কল্পনার মত হইলেই ভাল হয় । টাকা শ্যামা বেশি চায় না, অসম্ভব দাবী তার নাই। কয়েকটি মেযে দেখা হইল, পছন্দ হইল না। তারপর পাড়ার একবাড়ির গৃহিণী, শ্যামার সঙ্গে তার মোটামুটি আলাপ ছিল, একটি খুব ভাল মেয়ের সন্ধান দিলেন। শহরের অপরপ্রান্তে গিয়া মেয়েটিকে দেখিবা মাত্র শ্যামা পছন্দ করিয়া ফেলিল। বড় সুন্দরী মেয়েট, যেমন রঙ তেমনি নিখুত মুখ চোখ। আর কোমল আর ক্ষীণ আর ভীরু । শুষ্ঠামাকে যখন সে প্ৰণাম করিলে মনে DBB BBB DDB DDBDD D DuD DDBDBDBS S SBB না, এমন নরম সে মেয়ে, এত তার কোমলতা । মেয়ে পছন্দ করিয়া শ্যামা বাড়ি ফিরিল। সে বড় খুসি হইয়াছে। এমন মেয়ে যে খুজিলেও মেলে না ! কি রূপ, কি নম্রতা ! ওর কাছে কোথায় লাগে শামু ? মোহিনীর সঙ্গে বিধানকে সে একদিন জোর করিয়া মেয়ে দেখিতে পাঠাইয়া দিল। ফিরিয়া আসিয়া মোহিনী বলিল, না মা, পছন্দ হল না মেয়ে। י ; ; : . -