পাতা:মিঠেকড়া - সুকান্ত ভট্টাচার্য্য.pdf/১৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

মেয়েদের পদবীতে গোলমাল ভারী,
অনেকের নামে তাই দেখি বাড়াবাড়ি ;
‘আ'কার অন্ত দিয়ে মহিলা করার
চেষ্টা হাসির। তাই ভূমিকা ছড়ার ।
'গুপ্ত’ ‘গুপ্তা’ হয় মেয়েদের নামে,
দেখেছি অনেক চিঠি, পোষ্ট কার্ড, খামে।
সে নিয়মে যদি আজ ‘ঘোষ হয় ‘ঘোষা’,
তা হ’লে অনেক মেয়ে করবেই গোসা,
‘পালিত' ‘পালিতা’ হ’লে ‘পাল' হ’লে ‘পালা’
নির্ঘাৎ বাড়বেই মেয়েদের জ্বালা ;
'মল্লিক' মল্লিকা’, ‘দাস’ হ’লে ‘দাসা'
শোনাবে পদবীগুলো অতিশয় খাসা,
‘কর' যদি 'করা' হয়, ‘ধর’ হয় ‘ধরা",
মেয়েরা দেখবে এই পৃথিবীটা—“সরা” ।
‘নাগ যদি ‘নাগা' হয়, "সেন" হয় ‘সেনা',
বড়োই কঠিন হবে মেয়েদের চেনা।।

২১