পাতা:মুকুট - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/২৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

২৪

মুকুট

 রাজধর। সে-কথা ঠিক। ক্ষেত্র হতে যুদ্ধ করে মজুররা— দূরে থেকে যে যুদ্ধ করতে পারে সেই যোদ্ধা। ইশা খাঁ কী বললেন।

 ধুরন্ধর। তোমার উপর তাঁর বিশ্বাস কিরকম সে তো তুমি জানই— তুমি যদি পায়ে ধরতে যাও তাহলেও তিনি সন্দেহ করেন নিশ্চয় জুতোজোড়াটা তোমার সরাবার মতলব আছে। তাই ইশা খাঁ বললেন, ‘যুদ্ধক্ষেত্র থেকে রাজধর তফাতে থাকতে চান সেটা তাঁর পক্ষে আশ্চর্য নয় কিন্তু পাঁচ হাজার সৈন্য সঙ্গে রাখতে চান সেইটে আমার ভালো ঠেকছে না।’

 রাজধর। যুবরাজ কিছু বললেন না?

 ধুরন্ধর। যুবরাজ কাউকে যে সন্দেহ করবেন সেপরিমাণ বুদ্ধি ভগবান তাঁকে দেননি— এমন কি, তুমি যে তুমি, তোমার উপরেও তাঁর সন্দেহ হয় না।

 রাজধর। দেখো, ধুরন্ধর, দাদার কথা তুমি অমন করে বোলো না।

 ধুরন্ধর। ওঃ, ঐ জায়গাটা তোমার একটু নরম আছে, সেটা মাঝে মাঝে ভুলে যাই। যা হোক, তিনি বললেন, ‘না না, রাজধরের প্রতি তোমরা অন্যায় অবিচার করছ, তাঁর প্রস্তাবটা তো আমার ভালোই ঠেকছে।