পাতা:মুর্শিদাবাদের ইতিহাস-প্রথম খণ্ড.djvu/৩১২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

তৃতীয় অধ্যায় । ミ○○ কাশমবাজারের ফৌজদারের উৎপীড়নে ইংরাজের বাঙ্গলার তুবেদারের বিরুদ্ধাচরণ করায়, বাদসহ আরেঙ্গজেব ও নবাব সায়েস্তা খাঁ তাহীদের প্রতি অত্যন্ত অসন্তুষ্ট হন। তজ্জন্ত ১৬৮৬ পুষ্টাব্দে নবাব সায়েস্তা খার আদেশে পাটনা, চাকা ও মালদহ কুঠার সহিত কাশীমবাজারের কুঠীও সরকারকর্তৃক অধিকৃত হয়, এবং ইংরাজেরাও বাঙ্গলা হইতে বিতাড়িত হন। নবাব ইব্রাহিম খাঁ তাহাদিগকে পুনৰ্ব্বার আহবান করিয়া বিনা শুল্কে বাণিজ্য করার আদেশ প্রদান করিলে, অন্তান্ত স্থানের দ্যায় কাশীমবাজার কুঠীরও কাৰ্য্য আরব্ধ হয়। এই সময়ে কলিকাত৷ প্রতিষ্ঠিত হইয়া বাঙ্গালার মধ্যে ইংরাজদিগের সর্বশ্রেষ্ঠ স্থান হওযায় কাশীমবাজারের গৌরব হ্রাস হইতে থাকে। খৃষ্টীয় সপ্তদশ শতাব্দীর শেষ ভাগে সভা সিংহ ও রহিম খাঁর বিদ্রোহে ভীত হইয়া কাশীমবাজারের বণিকৃগণ মখস্থসাবাদে বিদ্রোহিগণকে শান্ত করিয়া কোনরূপে নিস্কৃতিলাভে সক্ষম হইয়াছিলেন । অষ্টাদশ শতাব্দীর প্রারম্ভে ইউরোপীয় জলদসু্যগণের উপদ্রবে বিরক্ত হইয়া বাদসাহ আরেঙ্গজেব ইংরেজদিগের বাণিজ্যরোধের আদেশ দেন। তজ্জন্ত ১৭৯২ খৃষ্টাব্দে পাটনা, রাজমহল ও কাশীমবাজার কুঠার কৰ্ম্মচারিবর্গ সমস্ত সম্পত্তিসহ বন্দী হইলে, অনেক দিন পর্য্যন্ত কাশীমবাজার কুঠার কার্য অপ্রচলিত থাকে। ইহার পর মুর্শিদকুলী খাঁ প্রথমে দেওয়ান ও পরে নাজিমরূপে সুর্শিদাবাদে অবস্থিতি করিলে, ইংরাজের কাশীমবাজার কুঠার পুনর্বন্দোবস্তের জন্য বহু বৎসর ব্যাপিয়া চেষ্টা করেন। সেই সময়ে মিষ্টার রবার্ট হেজেস কাশীমবাজার কুঠীর অধ্যক্ষ ছিলেন । ইংপরে মিষ্টার ফীকৃ অধ্যক্ষ নিযুক্ত হইয়৷ ১৭১৫ খৃষ্টাব্দে