পাতা:মুর্শিদাবাদের ইতিহাস-প্রথম খণ্ড.djvu/৩৩৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

있e মুর্শিদাবাদের ইতিহাস । আৰ্ম্মেণীয়গণের পর ফরাসীদিগকে মুর্শিদাবাদ প্রদেশে .u. বাণিজ্যার্থে আগত দেখিতে পাওয়া যায়। তাহারাও করলডাঙ্গার সৈয়দাবাদে আপনাদিগের কুঠী স্থাপন করিয়৷ ফরাসীগণ ছিলেন। আৰ্ম্মেণীয়গণের আবাস স্থানের পশ্চিমে ফরাসীগণ অবস্থিতি করেন । র্তাহীদের অবস্থিতি স্থানকে সাধারণ লোকে ফরাসডাঙ্গ বলিয়া থাকে। যদিও এক্ষণে সৈয়দাবাদে ফরাসীদিগের কোনই চিহ্ন নাই, তথাপি র্তাহাদের বসতিস্থান অদ্যাপি ফরাসডাঙ্গ বলিয়া অভিহিত হইতেছে। ১৬৭৩ খৃষ্টাকে চন্দননগরে অবস্থান করার পর তাহারা সৈয়দাবাদে উপস্থিত হইয়া বাণিজ্য-ব্যাপারে প্রবৃত্ত হন । যে ডিউল্পে সমগ্র ভারতবর্মে রাজনৈতিক ব্যাপারে প্রসিদ্ধি লাভ করিয়াছিলেন, তিনি কিছু কাল সৈয়দাবাদ ফরাসডাঙ্গায় অবস্থিতি করেন। ১৭৫১ খৃষ্টাব্দে নবাব আলিবন্দী খাঁর রাজত্ব সময়ে নবাব-দরবারের সহিত গোলযোগ উপস্থিত হওয়ায়, সৈয়দাবাদের ফরাসী কুঠী নবাবের সৈন্য দ্বারা পরিবেষ্টিত হয়, পরে ৫০ হাজার সিক্ক টাকা দিয়া ফরাসীগণ নিস্কৃতি লাভ করেন। * নবাব সিরাজ-উদ্দৌলার সময়ে ‘ল সাহেব সৈয়দাবাদ ফরাসী কুঠীর অধ্যক্ষ ছিলেন । সিরাজের দরবারে তাহার যথেষ্ট প্রতিপত্তি ছিল, এবং সিরাজও অনেক বিষয়ে তাহার পুরামর্শ গ্রহণ করিতেন। কলিকাতা আক্রমণের পর হলওয়েল সাহেব যে সময়ে বন্দী-অবস্থায় মুর্শিদাবাদে গমন করিতেছিলেন, সেই সময়ে সৈয়দাবাদ ফরাসডাঙ্গায় তাছার নৌকা উপস্থিত হইলে ‘ল সাহেব আহাৰ্য্য প্রভৃতি প্রদান

  • Long's Records.