পাতা:মুর্শিদাবাদের ইতিহাস-প্রথম খণ্ড.djvu/৩৫৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

૨૪ જ মুর্শিদাবাদের ইতিহাস । গবর্ণর নিযুক্ত হন । কিন্তু তখনও বাঙ্গালা মান্দ্রাজের অধীন ছিল। সেই বৎসরে বাদসাহ হংরাজদিগের উপর পুনৰ্ব্বার অসন্তুষ্ট হওয়ায়, ভারতের সর্বত্রই তাহাদের বাণিজ্যের নানাপ্রকার অসুবিধ উপস্থিত হয়। কিন্তু নবাব ইব্রাহিম খণর অনু. গ্রহে ও চেষ্টায় ইংরাজ কোম্পানী বাঙ্গলায় সৰ্ব্ব বিষয়ে অধিকার, চু্যত হন নাই। ইহার পরই বঙ্গরাজ্যে এক মহাবিপ্লব উপস্থিত হওয়ায়, ইংরাজের কলিকাতায় দুর্গনিৰ্ম্মাণের অধিকার লাভ করেন। সেই বিপ্লবের সহিত মুর্শিদাবাদেরও ঘনিষ্ঠ সম্বন্ধ থাকায় আমরা তাহার আনুপূৰ্ব্বিক বিবরণ প্রদান করিতেছি । নবাব ইব্রাহিম খাঁ। বাঙ্গলার শাসন ভার গ্রহণ করিয়৷ যদিও শান্তিস্থাপনে প্রয়াসী হইয়াছিলেন, তথাপি তিনি সামরিক ব্যাপারে তাদৃশ পারদর্শী না হওয়ায়, র্তাহার রাজ্যমধ্যে অস্তবিপ্লবের স্বচনা আরব্ধ হয়। অবশেষে হিজরী ১১০৭ বা ১৬৯৫-৯৬ খৃষ্টাব্দে পশ্চিম বঙ্গে এক মহাবিপ্লব উপস্থিত হইয় সমস্ত বঙ্গরাজ্যকে অশান্তিময় করিয়া তুলে । বৰ্দ্ধমান প্রদেশের চেতোয় ও বর্দানামক গ্রামদুয়ের জমীদার সভা সিংহ কর্তৃক এই বিপ্লবের স্বষ্টি হয়। সেই সময়ে বৰ্দ্ধমানরাজ কৃষ্ণরাম রায় ঐশ্বৰ্য্যে ও ক্ষমতায় পশ্চিম বঙ্গে অদ্বিতীয় হইয়া উঠেন। কোন কারণে সভা সিংহ রাজা কৃষ্ণরামের প্রতি অসন্তুষ্ট হয় । রাজার প্রভূত্ববিস্তারেই হউক, অথবা তাহার প্রতি ঈর্ষ্যপরায়ণ হইয়াই হউক, সভা সিংহ তাহার বিরুদ্ধ আচরণ আরম্ভ করে। কিন্তু একাকী রাজার সহিত বিবাদে প্রবৃত্ত হইতে সাহসী না হইয় উড়িষ্যার আফগানগণের জনৈক সর্দার রহিম খাকে তাহার সপ্তদশ শতাব্দীর বিদ্রোহ ।