পাতা:মুর্শিদাবাদের ইতিহাস-প্রথম খণ্ড.djvu/৪৯২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

बर्छ অধ্যায় । 8)○ নিযুক্ত হইলেন । দিন দিন কলিকাতা বন্দরে অপৰ্য্যাপ্ত দ্রব্যের আমদানী ও রপ্তানী হইতে লাগিল। অল্প কালের মধ্যে অনেকে ধনসম্পত্তি লাভ করিয়া ভাগ্যবান হইয়া উঠিল। তাহাতে কোম্পানীর কোন প্রকার ক্ষতি বা সরকারের কৰ্ম্মচারিগণের কোনরূপ বিরাগ উৎপন্ন হয় নাই। কলিকাতার অধ্যক্ষ মধ্যে মধ্যে নানা প্রকার উপহার প্রদান করিয়া নবাবকে সন্তুষ্ট করিতে লাগিলেন। কলিকাতা ব্যতীত অন্যান্ত স্থানের কুঠীর কার্য্যও সুচারু রূপে সম্পাদিত হইতে লাগিল। কলিকাতার অধিবাসিগণ এক্ষণে অন্যান্ত স্থানের প্রজা অপেক্ষাও স্বাধীনতা ও সুখভোগের অধিকার প্রাপ্ত হইল এবং তাহার আকারও দিন দিন বৰ্দ্ধিত হইয়া শোভা ও সমৃদ্ধিতে অতুলনীয় হইয়া উঠিতে লাগিল। ক্রমে সেই কলিকাতা মহানগরীতে পরিণত হইয়া এক্ষণে বিদ্যুতালোকে প্রোজ্জ্বলিত শত শত মনেহারিণী ও নভশ্চম্বিনী সৌধমালা বক্ষে ধারণ করিয়া ভারতসাম্রাজ্যের রাজধানীরূপে ভাগীরথীবক্ষে আপনার অমরালাঞ্ছিত দিব্য কান্তি প্রতিবিম্বিত করিতেছে। সাজাদা আজিম ওখানের সুবেদারী সময়ে বাঙ্গলা,বিহার ও উড়িষ্যা তিন প্রদেশই তাহার অধীন ছিল । দিল্লীর বিপ্লব- কুলী খাঁর বিহারের সময়ে डिनिं তথায় গমন করিলে, ফরখ সের সুবেদারীপ্রাপ্তি। তাহার প্রতিনিধিরূপে অবস্থিতি করেন। কিন্তু মুর্শিদকুলীর প্রতি তিন প্রদেশের দেওয়ানী ও বাঙ্গল ও উড়িষ্যার নায়েব নাজিমী প্রদান করা হয়। বিহারে একজন স্বতন্ত্র নায়েব নাজিম ছিলেন। ফরখ - সের যৎকালে পাটনায় অবস্থিতি করেন, সে সময়ে সৈয়দ হোসেনআলিকে পাটনার নায়েব নাজিম দেখা যায়। ইহার পর ফরথসের সিংহাসনে উপবিষ্ট হইলে, বাঙ্গলায় বাদসাহবংশের কেহ প্রতিনিধি