পাতা:মুর্শিদাবাদের ইতিহাস-প্রথম খণ্ড.djvu/৬৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

88 মুর্শিদাবাদের ইতিহাস ও আর্কটের নবাব বলিয়া অভিহিত হইতেন। এতদ্ভিন্ন ত্রিচিন্নাপল্লী ও তাঞ্জেীরপ্রভৃতি রাজ্য ভিন্ন ভিন্ন হিন্দুরাজার অধীনস্থ ছিল । এই সময়ে দাক্ষিণাত্যে ইংরাজ, ফরাসী, ওলন্দাজ, ও পটুগীজপ্রভৃতি ইউরোপীয় জাতির বাণিজ্যপ্রভাব বিস্তীর্ণ হইতেছিল। ইহাদিগের মধ্যে ইংরাজ ও ফরাসীদিগের ক্ষমতা প্রবল হওয়ায়, উক্ত জাতিদ্বয় পরস্পর পরম্পরের প্রতিদ্বন্দ্বী হইয়া উঠে । তাহারা সৰ্ব্বদাই আপনাপন ক্ষমতা বিস্তার করিয়া নানাপ্রকার বিবাদে লিপ্ত হইয়া পড়িত, এবং সেই সময় হইতে ফরাসী ও ইংরাজের ভারতবর্ষে রাজ্যস্থাপনের স্পৃহা অত্যন্ত বলবতী হইয়া উঠে। ১৭৪৪ খৃষ্টাব্দে ইংলণ্ড ও ফুন্সের মধ্যে যুদ্ধ উপস্থিত হওয়ায় পূৰ্ব্বাঞ্চলে ইংরাজদিগের বাণিজ্য অক্ষুণ্ণ রাখার জন্ত কতকগুলি জাহাজ প্রেরিত হয়। ফরাসীদিগের সাহায্যের জন্ত লাবাৰ্দ্দনেসের কর্তৃত্বে কতকগুলি জাহাজও আগমন করে। ১৭৪৬ খৃষ্টাব্দে করমণ্ডল উপকূলে ইংরাজ ও ফরাসীর মধ্যে একটা সামান্ত যুদ্ধ হয়, তাহাতে বিশেষ কোন ফল হয় নাই। লাবাদনেস তদানীন্তন ফরাসী শাসনকৰ্ত্ত ডিউপ্লের সাহায্য চাহিয়া বঞ্চিত হইলে, তিনি সাহসে নির্ভর করিয়া ১৭৪৬ খৃষ্টাব্দের সেপ্টেম্বর মাসে ইংরাজদিগের মান্ডাজ আক্রমণ ও অধিকার করিয়া বসেন। তাহার পর লাবাৰ্দ্দনেস ভারতবর্ষ পরিত্যাগ করিয়া যান। ডিউল্পে লাবার্গনেসকে আপনার প্রতিদ্বন্দ্বী মনে করিতেন। লাবাৰ্দ্দনেসের ভারতবর্ষ পরিত্যাগের পর ডিউপ্লে ফরাসীদিগের মধ্যে সৰ্ব্বেসৰ্ব্বা হইয় উঠেন। ১৭৪৭ খৃষ্টাব্দে ইংরাজের ফরাসীদিগের পণ্ডিচেরী আক্রমণ করেন, কিন্তু তাহ অধিকার করিয়া উঠিতে পারেন নাই । আয়েলাসাপেলের সন্ধিতে ইউ