পাতা:মেয়েলি ব্রত ও কথা - পরমেশপ্রসন্ন রায়.pdf/৮৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Ae ইতু-রা’ল - হুকুম, তা অমান্ত করা তোমারা উচিত হয় না । রাজার আদেশ• ভাল কি মন্দ সে বিচার উপরওয়ালা ভগবান করবেন, সে ভায় আমাদের নয় । তুমি হুকুম মত ওদের রাজবাড়ী থেকে গোপনে নিয়ে এসো। মন্ত্রী তাই করলেন। যমুনা ভুবলেন, রাজারাজড়ার মেজাজ, একবার বোলচে তাড়িয়ে দাও, আবার বোলচে এনে দাও । আজ বোলচে কেটে ফেল, আবার কাল কোন না বলবে বঁচিয়ে এনে দাও । রাজার দুৰ্ম্মতি হয়েছে, দিদিও ব্ৰত ভুলে গেছে। যাই হােক, আমি এর প্রতীকার কচ্ছ। তার পর তিনি কতগুলি মশলা লালরঙ্গে গুলো মন্ত্রীর কাছে গিয়ে বলেন, আমি কাজটা সেরে ফেলেছি। রাজার আদেশ, কি করা যায় । ছেলে বেলা কার বোন বই তো নয়, তা এমন বেশী কি । বিয়ে হয়ে গেলে পর আর সম্পর্ক কি । আমরা ভাল মন্দ বুঝি না, আমাদের অন্ন বজায় থাকুলেই হলো, কি বল ? আমি লোক দিয়ে খুব গোপনে ওদের কেটে ফেলে এই রক্ত এনেছি ; যাও রাজাকে দেখাওগে । রক্ত না দেখলে তার প্রত্যয় হবে না । মন্ত্রী তাই করলেন!। যমুনা, রাণী ও তার ছেলেকে লুকিয়ে ঘরে রাখলেন। একদিন যমুনা বোলচেন, দিদি ব্ৰতটা ভুলে গিয়েই তোমার এই দশা। আমার কথা রাখ, তোমার ব্রত করতেই হবে। তা শুনে অমুনা বোলচেন, বােন, কি মুখ কামনা ক’রে আমি ব্ৰত করবো ? সোয়ামীর চেয়ে বড় দেবতা মেয়ে মানুষের আর পৃপ্লিবীতে নাই। সেই সোয়ামী যদি ব্ৰত না করলেই সুগ্ৰী চূন, তবে তার মনে কষ্ট দিয়ে আমার লাভাির্কণ তাঁর অনু, * মতি না পেলে আমি কি ক’রে ব্রত করবো। আর আরি