পাতা:ম্যালেরিয়া - দয়ালকৃষ্ণ ঘোষ.pdf/৯৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

৯২

ম্যালেরিয়া।

অফ পটাসের পান। (৪) পডফিলিন, রেজিন গ্রেণ, ইপিক্যাক্ ১/২ গ্রেণ, জেনসিয়ে ৩ শ্রেণ একত্র মিশাইয়া একটি বটিকা প্রস্তুত হইবে, এই রূপ দিবসে ৩ টি সেবন। (৫) যকৃত স্থানে নাইট্টহাইড্রোক্লরি লোসন অর্থাৎ ধাবন প্রয়োগ। (৬) রক্তামশয় থাকিলে পভ ইপিক্যা কম ও পিত, অহিফেন এবং সংকোচক ঔষধ।

 প্রদাহ বৃদ্ধি হইয়া কখন কখন যকৃতে প্যাধান হয় অর্থাৎ যকৃত পাকিয়া যায়। এরূপ ঘটনা ম্যালেরিয়াক্রান্ত প্রদেশ সমূহে সচরাচর দেখিতে পাওয়া যায়। কেবল মাত্র ম্যালেরিয়া দ্বারা, সঙ্গতিপন্ন ব্যক্তিদিগের এ পীড়া উৎপন্ন হইতে সচরাচর দেখিতে পাওয়া যায়।; কিন্তু যে সমস্ত দুঃখী ব্যক্তিরা অবশ্যকীয় ব্যয়কর পথ্য ও উপযুক্ত চিকিৎসা প্রাপ্ত হয় না তাহাদেরই মধ্যে ইহা মধ্যে মধ্যে লক্ষিত হয়।

 সুরাপান জনিত যকৃতে যে পুঁযাধান হয় তাহা যেমন সাংঘাতিক ম্যালেরিয়েৎপাদিত পুঁযাধান তেমন নহে। রোগীর বল থাকিলে প্রায়ই আরোগ্য হইয়া থাকে।

 চিকিসা— বলকারক পথ্য, কারবনেট, অফ এমোনিয়া ও ডিকসন, সিন্‌কোনা; নাইটোমিউরিয়াটিক এসিড, কুইনাইন এবং সিনকোনা; পোর্ট, এবং মাংসের জুস যথেষ্ট পরিমাণে; পুয স্থির নির্ণিত হইলে টোকায়ূ ও ক্যানুলার দ্বারা স্ফোটক বিদ্ধ করিয়া পুঁয বহিস্কৃত করিয়া দেওয়া। টোকার প্রয়োগ করিবার পুর্বে জ্ঞাত