পাতা:যশোহর-খুল্‌নার ইতিহাস প্রথম খণ্ড.djvu/৩০৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

২৩৪ যশোহর-খুলনার ইতিহাস । যায় না। সম্ভবতঃ তিনি রাজধানীতে প্রত্যাগত হইবার অব্যবহিত পরে অকালে মৃত্যুমুখে পতিত হন। এজন্য বৃদ্ধ নৃপতিকে আরও বৈরাগ্যপরায়ণ করিয়াছিল। এখন হইতে কেশব রাঢ় ও বরেন্দ্র উভয় প্রদেশ শাসন করিতে থাকেন। কিন্তু তিনি বিশ্বরূপের মত বীর বা সুদক্ষ ছিলেন না। এজন্য ফল হইল, রাজ্যমধ্যে বিপ্লব ও ষড়যন্ত্র। বল্লাল ও লক্ষ্মণ যে কৌলীষ্ঠের স্বষ্টি করিয়া সমাজসংস্কারে হস্তক্ষেপ করেন, সেই দেশময় আন্দোলনেই লোক ব্যতিব্যস্ত ছিল। কাহার কুল গেল, শীল গেল, কে কিরূপ মর্যাদা পাইল তাঁহাই তখন একমাত্র আলোচ্য বিষয় ছিল। বল্লাল কুলীনদিগের কুললক্ষণ রক্ষার পর্যবেক্ষণ জন্য যে ঘটকগণকে নিযুক্ত করিয়াছিলেন, তাহারা প্রাপ্তিযোগের অনুপাতে স্তাবকতা বা কুৎসারটন দ্বারা দেশ তোলপাড় করিয়া তুলিয়াছিলেন। সেনরাজত্বে সংস্কৃতের নবচর্চা ঘটক-কারিকারই পুষ্টিসাধন করিতে লাগিল। যখন সকলেই সমাজ লইয়া ব্যস্ত, রাজমন্ত্রণা-গৃহ সামাজিক বিচারে কোলাহলময়, মহাসান্ধিবিগ্রহিকের মস্তিষ্ক কুলের কূটতর্কে বিলোড়িত, তখন দেশের দিকে কাহারও দৃষ্টি ছিল না বৃদ্ধ রাজা ব্রাহ্মণপণ্ডিত দ্বারা পরিবৃত হইয়া শাস্ত্র ও পরলোকচর্চায় স্বচ্ছন্দে নবদ্বীপে গঙ্গাবাস করিতেছিলেন। গৌড় হইতে নবদ্বীপ পর্যন্ত গঙ্গার দুই ধারে অসংখ্য ব্রাহ্মণ কায়স্থ কুলীনের বাস হইয়াছিল। সকলেই নবদ্বীপে রাজার সভায় আসিতেন, কিন্তু আদিতেন কুলমর্যাদার জন্য, রাজকার্যের জন্য নহে। পূৰ্ব্বে বলা হইয়াছে যে নবদ্বীপে শাসনকেন্দ্রস্বরূপ কোন রাজধানী ছিল না। বৃদ্ধ রাজার প্রাসাদ রক্ষার জন্ত সামান্ত সংখ্যক প্রহরী মাত্র ছিল। এই সময়ে মুসলমান আক্রমণ হয় । মহম্মদ ইবক্রিয়ার * নামক খিলিজীবংশীয় এক অজ্ঞাতনাম বিকটমূৰ্ত্তি তুর্ক সৈনিক, দিল্লীশ্বর কুতবউদ্দীনের নিকট হইতে এক জায়গীর পাইয়া মগধে আসেন। সেখানে দেশ লুণ্ঠনাদি দ্বারা যথেষ্ট ধন সঞ্চয় ও সৈন্তসংগ্রহ করেন এবং বিহারঙ্গ হস্তগত করিয়া লন। জিগীষা জাগিলে থামে না। বঙ্গের অবস্থা তাহার

  • इंशं★ भूत्वा नाम इंकलिग्नाद्र खैकौन भश्शन-ई-रख् इंग्रांद्र शिजित्री। तृड्-ईब्रांब्र इंशंब्र BBBBD DDS BBBD DDSDDBB BBBB BBB B BBBB BDDD DDB BBB S অভিহিত করাই সঙ্গত ।