পাতা:যশোহর-খুল্‌নার ইতিহাস প্রথম খণ্ড.djvu/৩৩৮

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

যশোহর-খুলনার ইতিহাস । سرانجا তদ্বিষয়ে অধিকাংশ লোকেরই উদ্বোধন হয় নাই। এক্ষণেও বল্লালী নীতির কুফল ফলিতেছে, লোকের সর্বপ্রকার বিদ্বেষবুদ্ধি সামাজিক শাসনকে কলঙ্কিত করিতেছে। দেহবল, জ্ঞানবল, ধনবল, সকল বলের অভাব সামাজিক নিৰ্য্যাতন দ্বারা পূর্ণ করা হইতেছে, এবং সামাজিক শাসনের নামে কত ষড়যন্ত্র, নীচত্ব ও মিথ্যাচার যে দেশের মধ্যে বিনামূল্যে বিকাইতেছে তাহার ইয়ত্ত নাই। কৌলীন্ত-পরিপ্লাবিত দেশে মৌলিক ব্রাহ্মণ ও কায়স্থের সামাজিক উন্নতির একমাত্র উপায় হইয়াছে অর্থ। ইহা এখনও যেমন, পূৰ্ব্বেও তেমনি ছিল । আমরা পূৰ্ব্বে বলিয়াছি যে ত্রয়োদশ শতাব্দীর প্রথমভাগে যশোহর-খুলনার দক্ষিণে যে প্রাকৃতিক বিপ্লব হইয়াছিল, তাহার পরে ভৈরব, ভদ্র বা কপোতাক্ষ প্রভৃতি দক্ষিণদেশীয় নদীর কূলে যেখানে যখন বসতি স্থাপিত হইয়াছে, সেখানেই এতদঞ্চলের আদিম অধিবাসিগণ পুনরায় বাস করিয়াছেন। ইহার বিপ্লবাদি কারণে কিছুকালের জন্ত স্থানান্তরিত হইয়াছিলেন। এই সকল অধিবাসীর মধ্যে মৌলিক কায়স্থগণ প্রধান । র্তাহারা প্রথমে বৌদ্ধ ছিলেন, এবং সেই বৌদ্ধধৰ্ম্মাক্রান্ত প্রাচীন সমতটে বাস করিতেন । * ক্রমে তাহার কৌলীন্তের প্রভাবে নবাগত কুলীন কায়স্থগণের সংস্পর্শে ও প্ররোচনায়, বৌদ্ধমত পরিত্যাগ করিয়া হিন্দু বৈষ্ণব হন। অনুসন্ধান করিলে দেখা যায় মৌলিক কায়স্থগণ অধিকাংশই বিষ্ণুমন্ত্রে দীক্ষিত এবং কুলীন বংশজগণ তান্ত্রিক শাক্ত। তান্ত্রিক গুরুর প্রভাবে বঙ্গজ বৈদ্যগণ প্রায় সকলেই শাক্ত হন। মৌলিক কায়স্থগণ কুলীনদিগের প্রতিষ্ঠা করেন, কুলীনগণ গুরু-পুরোহিত ব্যতীত কোথায়ও থাকিতেন না। সুতরাং মৌলিকগণকেও কুলীনের গুরু-পুরোহিত মানিয়া লইতে হইয়াছিল এবং তাহাদিগের বসতির জন্ত বিশেষ ব্যবস্থা করিতে হইয়াছিল। এই কুলীন আত্মীয় এবং ব্রাহ্মণগণের প্রভাবে ক্রমে ক্রমে মৌলিক কায়স্থগণের “The kayasthas, if we exclude the descendants of those who are recognised as kulinas among the Dakshina Radhiya and Vangaja Communities and who were Bhahmanic in their tendencies, were mostly Buddhists. These are all Maulikas i. e. they originally belonged to this country, a Buddhist country” M. M. Haraprasad Sastri's Introduction to N. N. Vasus’ “Modern Buddhism” p. 20.