পাতা:রঙ্গমল্লী.djvu/৬৬

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সবুজ সমাধি 6:ፃ ( স্বপ্নে একজন তাতার সিপাহীর আবির্ভাব ) সৈনিক একটু তন্দ্র এসেছে কি অমূনি পালিয়েচে । স্ত্রীলোকেব এত সাহস ? আমিও ধড়মড়িয়ে উঠে তার পিছন পিছন ছুট, চুটুতে ছুটুতে একেবারে পশ্চিম প্রাসাদের দরজায় এসে পড়েচি—এই না সে ? হু, খুব পালানো হয়েচে যে ! এখন চল। (শাওকৗনকে গ্রেপ্তার করিয়া অন্তর্ধান ) সম্রাট (জাগিয়া ) যা, অদৃগু হ’য়ে গেল। দিনের বেলায় জেগে থাকৃতে, যাকে এত ডেকেও সাড়া পাইনি, স্বপ্নের কৃপায় তাকে পেয়েছিলুম, রাখতে পারলুম না,—স্বপ্নের সঙ্গে মিলিয়ে গেল। ওই !—বিরহী চক্রবাক চীৎকার করচে ; আমার এই বেদনার মৰ্ম্ম শুধু ওই বনের পাখীই বুঝতে পেরেচে।–চক্রবাকের মতন দুর্ভাগ্য অার কারে নেই ;—উত্তরে ওর তাতার সিপাহীর তীরের ভয়, দক্ষিণে ফন্দিবাজদের জলে পড়বার ভয় । নাঃ, আবার ডাকতে মুরু করলে, এই পার্থীগুলোর জালায় মনটা আরো খারাপ হয়ে উঠল। প্রতীহারী মহারাজ, আপনি দেবতুল্য, আপনি শোকে মলিন হ’য়ে থাকেন এ আমাদের সহ হয় না। সম্রাট এ শোক দমন করবার ক্ষমতা—আমার নেই। আমাকে তোমরা সবাই মিলে কেন এই এক কথা বারম্বার বল ? তোমরা কি শোক দুঃখের মৰ্ম্ম জান না ?—ওই যে পার্থীর আওয়াজ