পাতা:রজনী - বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/৭৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


श्रीऊ दङ। ఆసి আমি হতাশ হইয় জোৰানবন্দী রাখিয়া দিলাম। বলিদাম * আমার আর বড় সনোহ নাই ।” বিষ্ণুরাম বলিলেন, “ অত অল্প প্রমাণে আপনাকে সন্তুষ্ট হইতে বলি না। আর একটা জোবানবন্ধীর নকল দেখুন।” দ্বিতীর জোবানবন্ধীও দেখিলাম, যে উছাও ঐ কথিত বালীচুরীর মোকদমায় গৃহীত হইয়াছিল। এই জোবানবন্দীতে বক্তা রাজচন্দ্ৰ দাস। তিনি একমাত্র কুটুম্ব বলিয়া ঐ "প্ৰশনে উপস্থিত ছিলেন। তিনি হরেকৃষ্ণের শ্যালীপতি বুলিয়া আত্মপরিচর দিতেছেন। এবং চুীর বিষয় সকল সপ্রমাণ করিজে ¢छ्न । বিষ্ণুরাম বলিলেন, “উপস্থিত রাজচন্দ্র দাস সেই রাজচন্দ্র দাস। সংশয় থাকে ডাকিয় তাহাকে জিজ্ঞাসা করুন।” 扩 আমি বলিলাম, নিম্প্রয়োজন।” বিষ্ণুরাম আরও কতকগুলি দলিল দেখাইলেন, সে সকলের বৃত্তান্ত সবিস্তারে বলিতে গেলে, সকলের তাল লাগিবে না। ইহা বলিলেই যথেষ্ট হইবে, যে এই রজনী দাসী যে হরেকৃষ্ণ দাসের কন্যা তদ্বিধরে আমার সংশয় রহিল না । তখন te দেখিলাম বৃদ্ধ পিতা মাত লইয়া, অল্পের জন্য কাতর হইয়। বেড়াইব । বিষ্ণুরামকে বলিলাম, “ মোকদম করা বুথা। বিষয় রজনী দ্বাসীর, তাহার বিবর র্তাহাকে ছাড়িয়া দিব। তবে আমার জ্যেষ্ঠ সহোদর এ বিষয়ে আমার সঙ্গে তুল্যাধিকারী। র্তাহাঁকে জিজ্ঞাসা করার অপেক্ষ রহিঙ্গমাত্র।” 始 আমি একবার আদালতে গিয়া, আসল জোবানৰী । দেখিয়া আগিলাম। এখন পুরাণ নথি ছিড়ির ফেলে, তখন.