পাতা:রজনী - বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/৮২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শচীন্দ্র বক্তা । ११ আমি । তবে টপ্পা, থিয়াল প্রভৃতি থাকিতে বেদগান করেন কেন ? কোন কথাগুলি সুখকর—সামান্য গণিকাগণের কদৰ্য্য চরিত্রের গুণগান সুখকর, না দেবতাদিগের অসীম মহিমাগান সুখকর ? হারিরী, দ্বিতীর উত্তরে গেলাম। বলিলাম, " কোকিল গায়, কোকিলপত্নীকে মোহিত করিবার জন্য। মোহনর্থি যে শারীরিক ক্ষুক্তি, তাহাতে জীবের মুখ। কণ্ঠস্বরের স্মৃত্তি সেই শারীরিক স্মৃত্ত্বির অন্তর্গত। আপনি কাহাকে মুগ্ধ করিতে চাহেন ?” সন্ন্যাসী হাসিয়া বলিলেন, “ আমার আপনার মুকু r" মন, আত্মার অমুরাগী নহে, আত্মার হিতকারী নহে। তাহাকে বশীভূত করিবার জন্য গাই।” আমি। আপনার দার্শনিক, মন এবং আত্মা পৃথক্ বলিয়া মানেন। কিন্তু মন একটি পৃথকৃ, আত্মা একটি পৃথকৃ পদার্থ ইহা মানিতে পারি না । মনেরই ক্রিয়া দেখিতে পাই-ইচ্ছা, প্রবৃত্ত্যাদি আমার মনে। মুখ আমার মনে, দুঃখ আমার মনে। তবে আবার মনের অতিরিক্ত আত্মা, কেন মানিব ? যাহার ক্রিয়া দেখি তাঁহাকেই মানিব । বাহার কোন চিহ্ন দেখি না, তাহাকে মানিব কেন ? স। তবে বল না কেন, মন ও শরীর এক । শরীর ও মনের প্রভেদ কেন মানিব। যে কিছু কাৰ্য্য করিতেছ সকলই শরীরের কার্য্য—কোনটি মনের কার্য ? * আমি।” চিস্ত। প্রবৃত্তি তোগাদি । স। বিয়ে নিলে সে সকল শারীরিক ক্রিয়া नप्रं ।