পাতা:রজনী - বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/৯৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


( ৯২ ) তৃতীয় পরিচ্ছেদ । ( লবঙ্গলতার কথা) আমি মনে করিয়াছিলাম, রজনীর এই বিস্ময়কর কথা শুনিয়া, অমরনাথ আগুনে সেঁকা কলাপাতের মত শুকাইয়! উঠিবে। কই, তাহা ত কিছু দেখিলাম না। তাহার মুখ না শুকাইয়া বরং প্রফুল্প হইল। বিস্থিত হতবুদ্ধি, যা হইবার --তাহা আমিই হইলাম । অামি প্রথমে তামাস মনে করিতাম, কিন্তু রজনীর কাতরতা, অশ্রুপাত, এবং দাচ দেখিয়া আমার নিশ্চয় প্রতীতি জঘিল যে রজনী আন্তরিক বলিতেছে । আমি বলিলাম, “ রজনি ! কায়েতের কুলে তুমিই ধন্য ! তোমার মত কেহ নাই। কিন্তু আমি তোমার দানগ্রহণ করিব না।” যুজনী বলিল, “ ন’ গ্রহণ করেন আমি ইহা বিলাষ্টয়া দিব ।” আমি । অমরনাখ বাবুকে ? রজনী। আপনি উ*হাকে সবিশেষ চিনেন না ; আমি দিলেও উনি লইবেন না। লইবার অন্য লোক আছে। আমি । অমরনাথ কি বল ? অমর। আমার সঙ্গে কোন কথা হইতেছে না, আমি কি বলিব ? আমি বড় ফাপরে পড়িলাম ; রজনী যে বিষয় ছাড়িয়া দি , তাহাতে বিস্মিত ; আবার অমরনাথ যে বিষয় উদ্ধারের এত করিয়াছিল, যাহার লোতে রজনীকে বিৰা করিবার छत्वा खेtभाiभं कब्रिाउtझ्, cन दियग्र शंउ झांफ़ा शहेtठरझ, দেখিয়াও সে প্রফুল্ল। কাওখানা কি ?