পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অচলিত) দ্বিতীয় খণ্ড.pdf/২২৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


खे•निबले ३श्न ذهة অন্ধকূপই আমাদের মত ক্ষুদ্রকায়ার পক্ষে যথেষ্ট হইতে পারে তবু কি অনন্ত আকাশ হইতে আমরা বঞ্চিত হইয়াছি ? পৃথিবীর অতি ক্ষুদ্র একাংশ সম্বন্ধে কথঞ্চিং জ্ঞান থাকিলেই আমাদের জীবনযাত্রা স্বচ্ছন্দে চলিয়া যায়, তবু কেন মহন্ত চন্দ্রস্থৰ্য্যগ্ৰহতারার অপরিমেয় রহস্ত উদঘাটনের জন্য অশ্রাস্ত কৌতুহলে নিরস্তর লোকলোকাস্তরে আপন গবেষণা প্রেরণ করিতেছে ? আমরা যতই ক্ষুদ্ৰ হই না কেন তথাপি ভূমৈব সুখং ভূমাই আমাদের মুখ, নাল্পে মুখমস্তি, অল্পে আমাদের স্বথ নাই। হঠাৎ মনে হইতে পারে ব্রহ্ম হইতে অনেক অল্পে, পরিমিত আকারবদ্ধ আয়ত্তগম্য পদার্থে আমাদের মত স্বল্পশক্তি জীবের সুখে চলিয়া যাইতে পারে—কিন্তু তাহ চলে না । ততো যদুত্তরতরং তদরূপমনাময়ং—যিনি উত্তরতর অর্থাৎ সকলের অতীত, র্যাহাকে উত্তীর্ণ হওয়া যায় না, ধিনি অশরীর, রোগশোক-রহিত—য এতদ্বিচুঃ অমৃতাস্তে ভবস্তি, যাহারা ইহাকেই জানেন র্তাহারাই অমর হন—অথ ইতরে দুঃখমেব অপিয়স্তি, আর সকলে কেবল দুঃখই লাভ করেন । ፄ উপনিষৎ সকলকে আহবান করিয়া বলিতেছেন,— . তদেতৎ সত্যং তদমুতং তদ্বেদ্ধব্যং সোম্য বিদ্ধি । । n তিনি সত্য, তিনি অমৃত, র্তাহাকে বিদ্ধ করিতে হইবে, হে সেীম, তাহাকে বিদ্ধ কর । ধনুগ্রহীত্বেীপনিষদং মহাস্ত্রং— উপনিষদে যে মহাস্ত্র ধন্থর কথা আছে সেই ধন্থ গ্রহণ করিয়া— শরং হ্যপাসানিশিতং সন্ধয়ীত— উপাসনা দ্বারা শাণিত শর সন্ধান করিবে ! । _ আয়ম্য তদ্ভাবগতেন চেতসা লক্ষ্যং তদেবাক্ষরং সোম্য বিদ্ধি ! # তদ্ভাবগত চিত্তের দ্বারা ধন্থ আকর্ষণ করিয়া লক্ষ্য-স্বরূপ সেই অক্ষর ব্রহ্মকে বিদ্ধ কর । এই উপমাটি অতি সরল । যখন শুভ্ৰ সবলতনু আৰ্য্যগণ আদিম ভারতবর্ষের গহন মহারণ্যের মধ্যে প্রবেশ করিয়াছেন, যখন হিংস্র পশু এবং হিংস্র দস্থ্যদিগের সহিত তাহাদের প্রাণপণ সংগ্রাম চলিতেছে তখনকার সেই টঙ্কারমুখর অরণ্যনিবাসী কবির উপযুক্ত এই উপমা ! এই উপমার মধ্যে যেমন সরলতা তেমনি একটি প্রবলতা আছে। ব্রহ্মকে বিদ্ধ করিতে হইবে—ইহার মধ্যে লেশমাত্র কুষ্ঠিত ভাব নাই। প্রকৃতির একান্ত সারল্য এবং ভাবের একাগ্র বেগ না থাকিলে এমন অসঙ্কোচ বাক্য কাহারো মুখ দিয়া বাহির হয় 을