পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অচলিত) দ্বিতীয় খণ্ড.pdf/৬৪১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সহজ পাঠ \9):సె পার হয়ে যায় গোরু, পার হয় গাড়ি, দুই ধার উচু তার, ঢালু তার পাড়ি। চিকচিক্‌ করে বালি, কোথা নাই কাদা, একধারে কাশবন ফুলে ফুলে সাদা । কিচিমিচি করে সেথা শালিকের ঝাক, রাতে ওঠে থেকে থেকে শেয়ালের হাক । আর-পারে আমবন তালবন চলে, গায়ের বামুনপাড়া তারি ছায়াতলে । তীরে তীরে ছেলেমেয়ে নাহিবার কালে গামছায় জল ভরি’ গায়ে তারা ঢালে । সকালে বিকালে কতু নাওয়া হোলে পরে আঁচলে ছাকিয়া তারা ছোটো মাছ ধরে । বালি দিয়ে মাজে থালা, ঘটিগুলি মাজে, বধুরা কাপড় কেচে যায় গৃহকাজে । আষাঢ়ে বাদল নামে, নদী ভর-ভর,— মাতিয়া ছুটিয়া চলে ধারা খরতর। মহাবেগে কলকল কোলাহল ওঠে, ঘোলাজলে পাকগুলি ঘুরে ঘুরে ছোটে । দুই কূলে বনে বনে পড়ে যায় সাড়া, বরষার উৎসবে জেগে ওঠে পাড়া । =ਛੋ9 –ੱਚੋ। বেলা যায়। তেল মেথে জলে ডুব দিয়ে আসি। তারপরে খেলা হবে। এক এক খেলা যায় না। ঐ বাড়ি থেকে কয়জন ছেলে এলে বেশ হয় । ঐ-যে আসে শচী সেন, মণি সেন, বংশী সেন । আর ঐ যে আসে মধু শেঠ আর খেতু শেঠ । ফুটবল খেলা খুব হবে। বল নেই । গাছ থেকে ঢেলা মেরে বেল পেড়ে নেব। তেলিপাড়া মাঠে গিয়ে খেলা হবে ।