পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অচলিত) দ্বিতীয় খণ্ড.pdf/৭০৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


আদ্য পরীক্ষা বাংলাভাষা ও সাহিত্য (ক) গদ্য न्विञ्जिखट्ञ ७=ंन्वन्क्तः ছোটোনাগপুর । এ লেখাকে ঠিক মতো ভ্রমণবৃত্তান্ত বলা চলে না, কেন না এতে নূতন পরিচিত স্থান সম্বন্ধে কোনো খবর দেওয়া হয়নি, কেবল প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত পর পর ছবি দেওয়া হয়েছে। এই ছবিতে দেখা যায় বাংলাদেশের দৃশ্বের সঙ্গে এর তফাৎ । বাংলাদেশে তোমাদের পরিচিত কোনো পল্লীর ভিতর দিয়ে গোরুর গাড়িতে ক’রে যাত্রা এমন ভাবে বর্ণনা করে যাতে এই লেখার সঙ্গে তুলনা করা যেতে পারে। অসম্ভব কথা এই গল্পটার মানে একটু ভেবে দেখা যাক। মানুষ চিরকাল গল্প শুনে আসছে, কত রূপকথা, কত কাব্যকথা, তার সংখ্যা নেই। এ রকম প্রশ্ন তার মনে যদি প্রবল হোত যে ঠিক এ রকম ঘটনাটি সংসারে ঘটে কি না, তবে সাহিত্যের বড়ো বড়ো মহাকাব্যগুলির একটিও টিকতে পারত না । রাবণের দশমুণ্ড অসম্ভব, হকুমানের এক লম্ফে লঙ্কা পার হওয়া কাল্পনিক, সীতার দুঃখে ধরণী বিদীর্ণ হওয়া অদ্ভুত অত্যুক্তি, এই অপবাদ দিয়ে মানুষ গল্প শোনা বন্ধ করেনি। মানুষের কল্পনা এ সমস্ত অপ্রাকৃত বিবরণ পার হয়ে পৌচেছে সেইখানে গিয়ে যেখানে আছে মানুষের সুখদুঃখ । গল্পের ভিতর দিয়ে যদি তার হৃদয়ের সাড়া পাওয়া যায় তাহলে মানুষ নালিশ করে না । অসম্ভব গল্প ব’লে যে গল্পটা পড়েছ তার মধ্যে কোনটুকু অসম্ভব এবং তৎসত্ত্বেও এ গল্পে কৌতুহল ও বেদনা সত্য হয়ে উঠেছে কেন বুঝিয়ে দাও । এবং যদি পারে। এ গল্পটিকে বদল ক’রে দিয়ে সম্ভবপর ক’রে দিয়ে লেখো । বাপের অনুপস্থিতিতে মেয়েটি অরক্ষণীয়া হয়েছে এবং তাড়াতাড়ি কুলরক্ষার উপযোগী পাত্রে বিয়ে দিয়ে দুর্ঘটনা ঘটল এটাকে বাস্তবের রূপ দিয়ে লেখার চেষ্টা করে । গল্প শোনা সম্বন্ধে প্রাচীন কালের সঙ্গে আধুনিক কালের রুচির কী প্রভেদ হয়েছে তাও জানিয়ে দাও ।