পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অচলিত) দ্বিতীয় খণ্ড.pdf/৭৩৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অাদর্শ প্রশ্ন 이 সীতা সকলকে সমাগত দেখিয়া অধোমুখী, অধোদৃষ্টি এবং কৃতাঞ্জলি হইয়া এইরূপ কহিতে লাগিলেন, “আমি রাম ভিন্ন জানি না, আমার এই বাক্য যদি সত্য হয়, তবে পৃথিবীদেবী আমাকে বিবর প্রদান করুন!” বৈদেহী এইরূপ শপথ করিলে দিব্য সিংহাসন সহসা রসাতল হইতে আবিভূত হইল এবং সেই স্থলে পৃথিবীদেবী সীতাকে দুই বাহুদ্বারা গ্রহণ করিলেন । সিংহাসনারূঢ়া সীতাকে রসাতলে প্রবেশ করিতে দেখিয়৷ তদুপরি স্বৰ্গ হইতে পুষ্পবৃষ্টি হইতে লাগিল । অথবা— নিম্নলিখিত কাব্যাংশ গদ্য করিয়া লিখ — বিলাপ করেন রাম লক্ষ্মণের আগে, ভুলিতে না পারি সীতা সদা মনে জাগে । রাজ্যচ্যুত আমাকে দেখিয়া চিন্তান্বিত হরিলেন পৃথিবী কি আপন দুহিতা ? রাজ্যহীন যদ্যপি হয়েছি আমি বটে রাজলক্ষ্মী তথাপি ছিলেন সন্নিকটে । আমার সে রাজলক্ষ্মী হারাইল বনে, কৈকেয়ীর মনোভীষ্ট সিদ্ধ এতদিনে । সৌদামিনী যেমন লুকায় জলধরে লুকাইল তেমন জানকী বনান্তরে । কনকলতার প্রায় জনকদুহিতা বনে ছিল কে করিল তারে উৎপাটিত । দিবাকর নিশাকর দীপ্ত তারাগণ দিবানিশি করিতেছে তমো নিবারণ, তারা না হরিতে পারে তিমির আমার এক সীতা বিহনে সকল অন্ধকার । উল্লিখিত কবিতার তৃতীয় ছত্রে চিন্তান্বিত শব্দটি কাহার বিশেষণ ?