পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অচলিত) প্রথম খণ্ড.pdf/১০২

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রবীন্দ্র-রচনাবলী দেখিছে লুটায় ঢেউ আবার লুটায়, দিগন্তে খেলায়ে পুনঃ দিগন্তে মিলায় ! দেখে শূন্ত নেত্ৰ তুলি– খণ্ড খণ্ড মেঘগুলি জ্যোছনা মাখিয়া গায়ে উড়ে উড়ে যায় । একখণ্ড উড়ে যায় আর খণ্ড আসে চাকিয়া টাদের ভাতি মলিন করিয়া রাতি মলিন করিয়া দিয়া স্থনীল আকাশে । পাখী এক গেল উড়ে নীল নভোতলে, ফেনখণ্ড গেল ভেসে নীল নদীজলে, দিবা ভাবি অতিদূরে আকাশ স্বধায় পুরে ভাকিয়া উঠিল এক প্রমুগ্ধ পাপিয়া । পিউ, পিউ, শূন্যে ছুটে উচ্চ হতে উচ্চে উঠে— আকাশ সে সূক্ষ্ম স্বরে উঠিল কঁাপিয়া । বসিয়া গণিল বালা কত ঢেউ করে খেলা, কত ঢেউ দিগন্তের আকাশে মিলায়, কত ফেন করি খেলা লুটায়ে চুম্বিছে বেলা, আবার তরঙ্গে চড়ি স্বদূরে পলায় । দেখি দেখি থাকি থাকি আবার ফিরায়ে জাখি নীরদের মুখপানে চাহিল সহসা— আধেক মুদিত নেত্র অবশ পলকপত্ৰ— অপূৰ্ব্ব মধুর ভাবে বালিকা বিবশ ! নীরদ ক্ষণেক পরে উঠে চমকিয়া, অপূৰ্ব্ব স্বপন হতে জাগিল যেন রে । দূরেতে সরিয়া গিয়া থাকিয়া থাকিয়া বালিকারে সম্বোধিয়া কহে মৃদ্ধস্বরে—