পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অচলিত) প্রথম খণ্ড.pdf/১০৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


वन-यूल জমি জমি জলরাশি পর্বতগুহায় একদিন উথলিয়া উঠে রে উচ্ছ্বাসে, একদিন পূর্ণ বেগে প্রবাহিয়া যায়, গাহিয়া স্বখের গান যায় সিন্ধুপাশে — আজি হতে কমলার নূতন উচ্ছ্বাস, বহিতেছে কমলার নূতন জীবন। কমলা ফেলিবে আহা নূতন নিশ্বাস, কমলা নূতন বায়ু করিবে সেবন । কাদিতে ছিলাম কাল বকুলতলায়, নিশার আঁধারে অশ্র করিয়া গোপন ! তাৰিতে ছিলাম বলি পিতায় মাতায়— জানি না নীরদ আহা এয়েছে কখন । সেও কি কাজিতে ছিল পিছনে আমার ? সেও কি কাদিতে ছিল জামারি কারণ ? পিছনে ফিরিয়া দেখি মুখপানে তার, মন ৰে কেমন হল জানে তাহা মন । নীরদ কহিল হৃদি ভরিয়া স্বধায়— “শোভনে ! কিসের তরে করিছ রোঙ্গন ? चांश श ! मौद्गम षनि चांदांव्र तथाग्न, ‘কমলে ! কিসের তরে করিছ রোদন ? বিজয়েরে বলিয়াছি প্রাতঃকালে কাল – একটি হৃদয়ে নাই ছজনের স্থান ! নীরুদেই ভালবাসা দিব চিরকাল, প্রণয়ের কল্পিৰ না কক্ষু অপমান। به ع