পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অচলিত) প্রথম খণ্ড.pdf/২২৪

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রবীক্স-রচনাবলী জাশ মিটাইয়া বুঝি ভালবাসি নাই, ভালবাসা পাই নি বা যতখানি চাই ! যেন গো বাহার তরে মন ব্যগ্র আছে অশরীরী ছায়া তার দাড়াইয়া কাছে, দুই বাছ বাড়াইয়া করি প্রাণপণ তাড়াতাড়ি ছুটে গিয়ে করি আলিঙ্গন— इब्रां ज्यूं- शब्रां उधू- क्षमब्र न भूत्रতা চেয়ে রহে না কেন শত ক্রোশ দূরে ? আমার এ উৰ্বশ্বাস পিপাসিত মন নাহি অন্ধুভবে তার হৃদয়ম্পন্দন । মন চায় হাতে তার রাখি মোর হাত বুকে তার মাথা রাখি করি আশ্রপাত ! সেই ত ধরিস্থ হাত বুকে মাখা রাখি, দৃঢ় আলিঙ্গন তারে করি থাকি থাকি— কিন্তু এ কি হল দ্বায়, এ কিসের মায়া ? কিছু না ছুইতে পাই, ছায়া সব ছায়া ! তাই ভাবি, মন মোর বা কিছু পেয়েছে সকলেরি মাঝে বুঝি অভাব রয়েছে ! ভূষিত হৃদয় চায় ভালবাসা বত ললিতা ফিরায়ে বুঝি দেয় নাকে তত । আমি চাই এক স্বরে দুই হৃদি বাজে, জাৰয়ণ নাহি রয় ছুজনার মাৰে । সমুত্র চাহিয়া থাকে জাকাশের পানে, জাকাশ সমূত্রে চায় অবাক নয়ানে, তেমনি দোহার হৃদি ছেন্ত্রিৰে দোহায়— পড়িৰে উতের ছায়া উভয়ের গায় । কিন্তু কেন, ললিতার এত কেন লাজ ! এত কেন ব্যবধান দুজনার মাৰ ? विजिवाब ठरब वाहे एहेब्रा चथैौब, মাৰেতে কেন রে হেন লৌহের প্রাচীর ?