পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অচলিত) প্রথম খণ্ড.pdf/৩১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কবি-কাহিনী ক্ষুত্র মানবের এই স্পদ্ধিত জ্ঞানের झुर्रण बग्नन वाग्न निशैलिउ cश्रख्न । হে জননি আমার এ হৃদয়ের মাঝে অনন্ত-অতৃপ্তি-তৃষ্ণ৷ জলিছে সদাই, তাই দেবি পৃথিবীর পরিমিত কিছু পারে না গো জুড়াইতে হৃদয় অামার, তাই ভাবিয়াছি আমি হে মহাপ্রকৃতি, মজিয়া তোমার সাথে অনস্ত প্রণয়ে জুড়াইব হৃদয়ের অনস্ত পিপাসা ! প্রকৃতি জননি ওগো, তোমার স্বরূপ যত দূর জানিবারে ক্ষুদ্র মানবেরে দিয়াছ গো অধিকার সদয় হইয়া, তত দূর জানিবারে জীবন আমার করেছি ক্ষেপণ আর করিব ক্ষেপণ । ভ্ৰমিতেছি পৃথিবীর কাননে কাননে— বিহঙ্গও যত দূর পারে না উড়িতে সে পৰ্ব্বতশিখরেও গিয়াছি একাকী ; দিবা ও পশে নি দেবি যে গিরিগহবরে, সেখানে নিৰ্ভয়ে আমি করেছি প্রবেশ । যখন ঝটিকা ঝঞ্চ প্রচও সংগ্রামে অটল পৰ্ব্বতচূড়া করেছে কম্পিত, সুগভীর অস্কৃনিধি উন্মাদের মত করিয়াছে ছুটাছুটি যাহার প্রতাপে, তখন একাকী অামি পৰ্ব্বত-শিখরে দাড়াইয়া দেখিয়াছি সে ঘোর বিপ্লব, মাথার উপর দিয়া সহস্ৰ অশনি সুবিকট অট্টহাসে গিয়াছে চুটিয়া, প্রকাও শিলার স্তূপ পদতল হোতে পড়িয়াছে ঘৰ্ঘরিয়া উপত্যকা-দেশে, তুষারসঙ্গাতরাশি পড়েছে খসিয়া SS