পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অচলিত) প্রথম খণ্ড.pdf/৪৮৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৪৬২ রবীন্দ্র-রচনাবলী কুমার তখন কহিলা স্বধীরে চাহি প্রতাপের মুখে, প্রতি কথা তার অনলের মত লাগিল তাহার বুকে— “একদা গভীর বরযানিশীথে নাই জাগি জন প্রাণী, সহসা সভয়ে জাগিয়া উঠিস্থ শুনিয়া কাতর বাণী । চাহি চারি দিকে দেখিকু বিস্ময়ে পিতার হৃদয় হতে— শোণিত বহিছে, শয়ন তাহার ভাসিছে শোণিতস্রোতে । কহিলেন পিতা— ‘অধিক কি কব আসিছে মরণবেলা, এই শোণিতের প্রতিশোধ নিতে না করিবি অবহেলা। ’ হৃদয় হইতে টানিয়া ছুরিকা দিলেন অামার হাতে, সে অবধি এই বিষম ছুরিকা রাথিয়াছি সাথে সাথে । করিন্থ শপথ ছু ইয়া কৃপাণ "শুন ক্ষত্ৰকুলপ্ৰভু, এর প্রতিশোধ তুলিব— তুলিব— না হবে অস্তথা কভু । নাম কি তাহার জানিতাম নাকে৷ ভ্ৰমিহ সকল গ্রাম—” অধীরে প্রতাপ উঠিল কহিয়া, “প্ৰতাপ তাহার নাম ! এখনি এখনি ওই ছুরি তব বসাইয়া দেও বুকে,