পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অচলিত) প্রথম খণ্ড.pdf/৫২৯

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রবীন্দ্র-রচনাবলী মুদিত নয়ন জুটি, শিখিলিত কায়, সিক্ত কেশ এলোখেলো শুভ্র বালুকায় । প্রতিক্ষণে লহরীরা ঢলিয়া বেলায় এলানে কুণ্ডল ল’য়ে কত না খেলায় ! বহু দিন পরে বখা কারামুক্ত জন হুর্বে অধীরিয়া উঠে হেরিয়া তপন বহু দিন পরে হেরি মাহুষের মুখ উচ্ছসি উঠিল স্থখে স্থল্লেশের বুক । দেখিল এখনো বহে নিশ্বাসসমীর, এখনো তুষারহিম হয় নি শরীর । যতনে লইল তারে বাহুতে তুলিয়া, কেশপাশ চারি পাশে পড়িল খুলিয়া । স্বকুমার মুখখানি রাখি স্বন্ধোপরে, দ্রুত পদে প্রবেশিল কুটারভিতরে । কতক্ষণ-পরে তবে লভিয়া চেতন ললিত। স্বধীরে অতি মেলিল নয়ন । দেখিল যুবক এক রয়েছে আসীন, বিশাল নয়ন তার নিমেষবিহীন— কুঞ্চিত কুন্তলরাশি গৌর গ্রীবা-’পরে এলাইয়া পড়ি অাছে অতি অনাদরে । চমকি উঠিল বাল। বিস্ময়ে বিহুৰল, সরমে সম্বরে তার শিথিল অঞ্চল । ভয়েতে অবশ দেহ, ছক কুরু হিয়া— আকুল হইয়া কিছু না পায় ভাৰিয়া । সহসা তাহার মনে পড়িল সকলি— সহসা উঠিল বসি নববলে বঙ্গী । স্বরেশের মুখপানে চাহিয়া চাহিয়া পাগলের মত বালা উঠিল কহিয়া, *কেন বঁাচাইলে মোরে কহ মোৱে কহু— দুই প্রণয়ীর কেন ঘটালে বিরহ ?