পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অচলিত) প্রথম খণ্ড.pdf/৫৫

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কবি-কাহিনী রক্ষক দেবতা সম আমারি উপরে প্রশাস্ত প্রেমের ছায়। রেখেছে বিছায়ে । দেহকারাগার মুক্ত হইলে আমিও তাহার হৃদয়সাথে মিশাব হৃদয় । নলিনী, আছ কি তুমি, আছ কি হেথায় ? একবার দেখা দে ৪, মিটা ও সন্দেহ ! চিরকাল তরে তোরে ভুলিতে কি হবে ? তাই বল নলিনী লো, বল একবার ! চিরকাল আর তোরে পাব না দেপিতে, চিরকাল আর তোর হৃদয়ে হৃদয় পাব না কি মিশাইতে, বল একবার । মরিলে কি পৃথিবীর সব যায় দূরে ? তুই কি আমারে ভুলে গেছিস্ নলিনি ? তা হোলে নলিনি, আমি চাই না মরিতে । তোর ভালবাসা যেন চিরকাল মোর হৃদয়ে অক্ষয় হোয়ে থাকে গো মুদ্রিত— কষ্ট পাই পাব, তবু চাই না ভুলিতে ! তুমি নাহি থাক যদি তোমার স্মৃতিও থাকে যেন এ হৃদয় করিয়া উজ্জল । এই ভালবাসা যাহা হৃদয়ে মরমে অবশিষ্ট্র রাখে নাই এক তিল স্থান, একটি পার্থিব ক্ষুদ্র নিঃশ্বাসের সাথে মুহূৰ্ত্তে হবে কি তাহা অনন্তে বিলীন ? যত কাল বেঁচে রব, রবে বা হৃদয়ে মুহূৰ্ত্তে না পালটিতে আঁখির পলক ক্ষণস্থায়ী কুস্কমের স্বরভের মত শূন্ত এই বায়ুস্রোতে যাইবে মিশায়ে ? হিমাদ্রির এই স্তৰু সাধার গহবরে সময়ের পদক্ষেপ গণিতেছি বসি, ভবিষ্যৎ ক্রমে হইতেছে ৰত্তমান, ඵ්ණ්