পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অচলিত) প্রথম খণ্ড.pdf/৫৬৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


& 88 রবীন্দ্র-রচনাবলী হইতে ১২৮৩ সালের আশ্বিন-কাতিক পর্যন্ত ইহা ধারাবাহিক ভাবে প্রকাশিত হয় । প্রসঙ্গতঃ এখানে বলিয়া রাখা উচিত যে, অগ্রহায়ণ সংখ্যা পত্রিকা ১৪ই ফাগুন প্রকাশিত হইয়াছিল । মধ্যে কয়েক সংখ্যা পত্রিকায় (পৌষ, ফান্তন ১২৮২ ; বৈশাখ, আষাঢ় ১২৮৩ ) বন-ফুল’ বাহির হয় নাই । ভগ্নহৃদয় এই বিচিত্র নাট্য-কাব্যখানি ১৮•৩ শকে [ ২৩ জুন ১৮৮১ ] মুজিত হয় । পৃষ্ঠাসংখ্যা ছিল ১৯৬ । ইহা পুনৰ্বমুত্রিত হয় নাই । সমগ্র পুস্তক মোট ৩৪ সর্গে সমাপ্ত। ১২৮৭ সালের কাতিক হইতে ফাগুন অবধি "ভারতী’ পত্রে ধারাবাহিকভাবে ইহার প্রথম ছয় সর্গ বাহির হয় । ‘ভগ্নহৃদয়’ সম্বন্ধে রবীন্দ্রনাথ ‘জীবনস্মৃতি’তে লিথিয়াছেন— বিলাতে আর একটি কাব্যের পত্তন হইয়াছিল। কতকটা ফিরিবার পথে কতকটা দেশে ফিরিয়া আসিয়া ইহ সমাধা করি। “ভগ্নহৃদয়” নামে ইহা ছাপান হইয়াছিল। ‘ভগ্নহৃদয় যখন লিখতে আরম্ভ করেছিলেম তখন আমার বয়স আঠারো।’ —প্রথম সংস্করণ, পৃ. ১২৭ এই পুস্তক সম্বন্ধে কয়েকটি কথা উল্লেখযোগ্য। বিখ্যাত ‘তোমারেই করিয়াছি জীবনের ধ্রুবতারা গানটি ‘ভারতী’তে ভগ্নহৃদয়ে'র "উপহার"-রূপে মুদ্রিত হইয়াছিল। পুস্তকাকারে প্রকাশ করিবার সময় "উপহার”টি সম্পূর্ণ পরিবতিত হইয়াছে। ‘ভগ্নহৃদয়’ স্বতন্ত্রাকারে বিলুপ্ত হইলেও ইহার বহু অংশ সংগীতরূপে রবীন্দ্রনাথের নানা সংগীত ও কাব্য -সংগ্রহগ্রন্থে স্থান পাইয়া আসিতেছে । আজও গাওয়া হইয়া থাকে বা গাওয়া যাইতে পারে ভাহা গীতবিতান, বিশেষতঃ উহার প্রচল তৃতীয় খণ্ড ( ১৩৭৬ ব৷ ১৩৭৯ ), দেখিলে বুঝা যাইবে । রবীন্দ্রনাথের প্রথম-প্রকাশিত ‘কাব্য গ্রন্থাবলী'তে ( আশ্বিন ১৩০৩ ) ভগ্নহৃদয়ের স্বতন্ত্র অস্তিত্ব না থাকিলেও যেমন ইহার কয়েকটি গান আছে তেমনি ২২টি সর্গ হইতে ( মোট সর্গসংখ্যা ৩৪ ) অনূ্যন ২৯টি রচনাংশ, স্বয়ংপূর্ণ কবিতা হিসাবে, বাসকসজ্জা’ ’খাম ‘চাঞ্চল্য’ প্রভৃতি শিরোনামে “কৈশোরক” অংশে ( দ্রষ্টব্য পৃ. ৫-১৫ ) দেওয়া হইয়াছে। স্বতরাং পূর্ণ বর্জনের অপমান এটিকে সহিতে হয় নাই। বস্তুতঃ, নানা রূপে রূপাস্তরে সামগ্রিক রবীন্দ্র-রচনাধারায় স্থায় ভাবে ইহার সত্তা মিলিয়। মিশিয়া আছে।