পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অচলিত) প্রথম খণ্ড.pdf/৮৭

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বন-ফুল তটিনীতরঙ্গকুল ভিজায়ে গাছের মূল ধীরে ধীরে বলে যেন যে ও না । যে ও না”— বনদেবী নেত্র খুলি পাতার আঙ্গুল তুলি যেন বলিছেন আহা ‘যেও না !—যে ও না "– নেত্ৰ তুলি স্বৰ্গ-পানে দেখে পিতা মেঘযানে হাত নাড়ি বলিছেন যে ও না !—যে ও না – বালিকা পাইয়া ভয় মুদিল নয়নদ্বয়, এক পা এগোতে আর হয় না বাসনা— আবার আবার শুন কানের কাছেতে পুন: কে কহে অন্মুট স্বরে ‘যেও না – যে ও না ? তৃতীয় সর্গ “যমুনার জল করে থল থল কলকলে গাহি প্রেমের গান । নিশার অঁাচোলে পড়ে ঢোলে ঢোলে স্বধাকর খুলি হৃদয় প্রাণ : বহিছে মলয় ফুল দুয়ে ছুয়ে, হয়ে ময়ে পড়ে কুস্বমরাশি ! ধীরি ধীরে ধীরি ফুলে ফুলে ফিরি মধুকরী প্রেম আলাপে আসি । আয় আয় সখি ! আয় দুজনায় ফুল তুলে তুলে গাথি লো মালা । ফুলে ফুলে আলা বকুলের তলা, হেথায় আয় লো বিপিনবালা । Vo