পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অচলিত) প্রথম খণ্ড.pdf/৯০

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


\»\y• রবীন্দ্র-রচনাবলী গিরিশিরে উঠি করি ছুটাছুটি হরিণের ছানাগুলির সাথে তটিনীর পাশে দেখিতাম বসে মুখছায়া যবে পড়িত তাতে । সরসীভিতরে ফুটিলে কমল তীরে বসি ঢেউ দিতাম জলে, দেখি মূখ তুলে— কমলিনী দুলে এপাশে ওপাশে পড়িতে ঢলে ! গাছের উপরে ধীরে ধীরে ধীরে জড়িয়ে জড়িয়ে দিতেম লতা, বসি একাকিনী আপনা-আপনি কহিতাম ধীরে কত কি কথা ! ফুটিলে গো ফুল হরফে আকুল হতেম, পিতারে কতেম গিয়ে । ধরি হাতখানি আনিতাম টানি, দেখাতেম তীরে ফুলটি নিয়ে । তুষার কুড়িয়ে আঁচল ভরিয়ে ফেলিতাম ঢালি গাছের তলে— পড়িলে কিরণ, কত যে বরণ ধরিত, তামোদে যেতাম গলে । দেখিতাম রবি বিকালে যখন শিখরের শিল্পে পড়িত ঢোলে করি ছুটাছুটি শিখরেতে উঠি দেখিতাম দূরে গিয়াছে চোলে । আবার ছুটিয়ে যেতাম সেখানে দেখিতাম আর ও গিয়াছে সোরে । প্রান্ত হয়ে শেষে কুটীরেতে এসে বসিতাম মুখ মলিন কোরে । শশধরছায়া পড়িলে সলিলে ফেলিতাম জলে পাথরকুচি–