পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (অচলিত) প্রথম খণ্ড.pdf/৯১

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বন-ফুল সরসীর জল উঠিত উথুলে, শশধরছায়া উঠিত নাচি । ছিল সরসীতে এক-হাট জল, ছুটিয়া ছুটিয়া যেতেম মাঝে, চাদের ছায়ারে গিয়া ধরিবারে আসিতাম পুনঃ ফিরিয়া লাজে । তটদেশে পুন: ফিরি আসি পর অভিমানভরে ঈষৎ রাগি চাদের ছায়ায় ছুড়িয়া পাথর মারিতাম— জল উঠিত জাগি । যবে জলধর শিখরের পর উড়িয়া উড়িয়া বেড়াত দলে, শিখরেতে উঠি বেড়াতাম ছুটি— কাপড়-চোপড় ভিজিত জলে । কিছুই – কিছুই – জানিতাম না রে, কিছুই হায় রে বুঝিতাম না । জানিতাম হা রে জগং মাঝারে আমরাই বুঝি আছি কজন ! পিতার পৃথিবী পিতার সংসার একটি কুটার পৃথিবীতলে জানি না কিছুই ইহা ছাড়া আর— পিতার নিয়মে পৃথিবী চলে ! আমাদেরি তরে উঠে রে তপন, জামাদেরি তরে টাদিম উঠে, আমাদেরি তরে বহে গো পবন, আমাদেরি তরে কুহুম ফুটে ! চাই না জেয়ান, চাই না জানিতে সংসার, মানুষ কাহারে বলে । বনের ফুস্কম ফুটিতাম বনে, শুকায়ে যেতেম বনের কোলে । అమ