পাতা:রবীন্দ্র-রচনাবলী (ঊনবিংশ খণ্ড) - বিশ্বভারতী.pdf/১৩

উইকিসংকলন থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বীথিক অতীতের ছায়া মহা অতীতের সাথে আজ আমি করেছি মিতালি— দিবালোক-অবসানে তারালোক জালি ধ্যানে যেথা বসেছে সে রূপহীন দেশে ; যেথা অস্তস্বর্য হতে নিয়ে রক্তরাগ গুহাচিত্রে করিছে সজাগ তার তুলি ম্ৰিয়মাণ জীবনের লুপ্ত রেখাগুলি ; নিৰ্মীলিত বসন্তের ক্ষান্তগন্ধে যেখানে সে গাথিয়া অদৃশ্যমালা পরিছে নিবিড় কালোকেশে ; যেখানে তাহার কণ্ঠহারে দুলায়েছে সারে সারে প্রাচীন শতাব্দীগুলি শান্ত-চিত্তদহন বেদনা মাণিক্যের কণা । লেখা বসে আছি কাজ ভুলে অভাচলমূলে * ছায়াবীথিকায়। রূপময় বিশ্বধারা অবলুপ্তপ্রায় অতীতের শূন্ত তার স্বটি মেলিতেছে মোর মনে । এ শূন্ত তো মরুমাত্র নয়, ' ' এ ৰে চিত্তময় ; ;